জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি থেকে ইটভাটা উচ্ছেদ

অপূর্ব চৌধুরীঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের  নির্ধারিত জায়গা থেকে ইটের ভাটা উচ্ছেদ করেছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুরে কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথের নেতৃত্বে প্রশাসনের একটি দল ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ইটের ভাটা উচ্ছেদ করেন।

জানা যায়, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের জন্য নির্ধারিত জায়গায় ইসমাইল হোসেন ‘পশ্চিমাদি ব্রিকস’ নামে একটি ইটভাটা অবৈধভাবে পরিচালনা করে আসছিলেন।কিন্তু সরকার ইটভাটার জমি ইসমাইল হোসেনের কাছ থেকে অধিগ্রহণ করে তার সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধ করে দেয়।জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব জায়গা থেকে ইটভাটা সরানোর কথা বললেও তাতে সাড়া দেয়নি ইসমাইল হোসেন।

বৃহস্পতিবার কেরানীগঞ্জে নতুন ক্যাম্পাসের নির্ধারিত জায়গা পরিদর্শনে যায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।পরিদর্শনে গিয়ে কর্তৃপক্ষ সেখানে গড়ে ওঠা এই অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদের জন্য কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রশাসনকে অনুরোধ জানায়।বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুরোধের প্রেক্ষিতে প্রশাসনের কর্মকর্তারা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে এই ইটভাটা উচ্ছেদ করেন।

ইটভাটা উচ্ছেদ করার ব্যাপারে কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ বলেন,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত জমিতে অবৈধ ইটের ভাটা থাকায় আমরা মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে সেটি উচ্ছেদ করেছি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাদের অনুরোধ করেছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত জমিতে কোন প্রকার অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠলে এগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, প্রশাসন অভিযান পরিচালনা করে ইটের ভাটা উচ্ছেদ করেছে।বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুরোধের পর কেরানীগঞ্জের ইউএনও ও প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা দায়িত্ব নিয়ে এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

লালপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থী জালালের মোটরসাইকেল শোডাউন

  লালপুর(নাটোর) প্রতিনিধিঃ নাটোরের লালপুরে তিন শতাধিক মোটরসাইকেল নিয়ে শোভাযাত্রা ও গণসংযোগ করেছে দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের …

error: Content is protected !!