সাধারণ সম্পাদক

নরসিংদীর মহিলালীগ নেত্রীর হোটেল বিল ১ কোটি ৩০ লাখ

হৃদয় এস সরকার, নরসিংদী প্রতিনিধিঃ  নরসিংদী যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক শামিমা নূর পাপিয়া রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে রুম বুকড করে বিভিন্ন পন্থায় নারীদের ফাঁদে ফেলে অনৈতিক কর্মকান্ড চালানো,অবৈধ সম্পদ, অস্ত্র ব্যবসা, মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি সহ বিভিন্ন অপরাধে লিপ্ত থাকায় পাপিয়াসহ ৪ জনকে আটক করেছে র‍্যাব।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর কারওয়ানবাজারে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে র্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শাফী উল্লাহ বুলবুল জানায়, রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দেশত্যাগের সময় তাদের আটক করা হয়েছে।

আটকৃতরা হলেন,পাপিয়ার ও তাঁর স্বামী সুমন চৌধুরী ওরফে মতি (৩৮), সাব্বির খন্দকার (২৯) ও শেখ তায়্যিবা (২২)। এসময় তাদের কাছ থেকে সাতটি পাসপোর্ট, নগদ ২ লাখ ১২ হাজার ২৭০ টাকা, ২৫ হাজার ৬০০ জাল টাকা, ১১ হাজার ৯১ ইউএস ডলারসহ বিভিন্ন দেশের মুদ্রা জব্দ করে র‍্যাব।

র‍্যাব জানায়, পাপিয়া গত তিন মাসে হোটেল প্রেসিডেন্ট স্যুট বুকড এর বিল পরিশোধ করেছেন প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা। কিন্তু পাপিয়ার বাৎসরিক আয় ১৯ লাখ টাকা। এবং হোটেলটিতে পাপিয়ার নিয়ন্ত্রণে ৭টি মেয়ের কথা জানা গিয়েছে। যাদের প্রতি মাসে ৩০ হাজার করে মোট ২ লাখ ১০ হাজার টাকা পরিশোধ করতেন তিনি।

এছাড়াও, নরসিংদী ও বিভিন্ন জায়গায় পাপিয়া সমাজ সেবার নাম করে দরিদ্র অসহায় মেয়েদের আর্থিক প্রলোভন দেখিয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্ত করতো। এজন্য অধিকাংশ সময় নরসিংদী ও রাজধানীর বিভিন্ন বিলাসবহুল হোটেল গুলোতে অবস্থান করে অনৈতিক কাজে নারী সরবরাহ করে আসছিলেন পাপিয়া। র্যাব আরো জানায়, আটক পপিয়ার নরসিংদীতে একটি গাড়ি সার্ভিসিং সেন্টার রয়েছে এবং তেজগাঁও এফডিসি গেট সংলগ্ন এলাকায় অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে একটি গাড়ির শো রুম ও এসব ব্যবসার আড়ালে তিনি অবৈধ অস্ত্র ব্যবসা , মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত।

পাপিয়ার কার্যকলাপে তার স্বামীর সহযোগিতা ছিলো। এবং চাঁদাবাজির জন্য পাপিয়ার একটি ক্যাডার বাহিনী রয়েছে। স্বামীর সহযোগিতায় নারী ব্যবসা, অবৈধ অস্ত্র, মাদক ও চাঁদাবাজির মাধ্যমে খুব কম সময়ে বিপুল পরিমাণ অর্থের মালিক, নরসিংদী ও ঢাকায় বিভিন্ন জায়গায় তাদের সম্পদ ছিলো বিস্তৃত। এবং বিলাসবহুল বাড়ি-গাড়ি রয়েছে তাদের। পাপিয়া তার ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে নানান ধরনের তদবির বাণিজ্যের সঙ্গেও জড়িত ছিলেন তবে এ বিষয়ে এখনো বিস্তারিত জানা যায়নি।

পাপিয়ার স্বামী সুমন একজন ব্যবসায়ী সে স্ত্রী ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে নারী ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্মে সাথে জড়িত। এবং আটক তায়্যিবা মতি সুমনের ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে কাজ করে। সাব্বির খন্দকার পাপিয়ার ব্যক্তিগত সহকারী ও আটক পাপিয়া এবং মতি সুমনের ব্যক্তিগত সম্পত্তির হিসাব দেখাশোনা করতো। নানান ভাবে পাপিয়া ও তার স্বামীর সুমনের কাজে সহযোগিতা করে আসছিলেন তারা।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর ৩য় বারের মত জানাজা অনুষ্ঠিত

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

প্রধান শিক্ষক এখন গরু খামারের কেয়ারটেকার

তাসনীমুল হাসান মুবিন,স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহের ত্রিশালের আলহেরা একাডেমী এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক আজিজুল হক …

5 comments

  1. I was able to find good info from your articles.

  2. The other day, while I was at work, my cousin stole my iPad and tested to see if it
    can survive a forty foot drop, just so she can be a youtube sensation. My iPad is now broken and she has
    83 views. I know this is totally off topic but I had to
    share it with someone!

  3. Hello there! I could have sworn I’ve visited your blog before but after going through some
    of the posts I realized it’s new to me. Regardless, I’m definitely delighted I
    stumbled upon it and I’ll be bookmarking it and checking back regularly!
    adreamoftrains content hosting

  4. whoah this weblog is wonderful i love studying your posts.
    Keep up the good work! You realize, many people are searching round for this
    information, you could help them greatly.

  5. I’m really impressed with your writing skills as well as with the layout
    on your weblog. Is this a paid theme or did you customize it yourself?
    Anyway keep up the excellent quality writing,
    it’s rare to see a great blog like this one nowadays.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!