Breaking News
Home / কেরানীগঞ্জ / বেশি দামে লবণ বিক্রি করায় কেরানীগঞ্জে ৩১ জন অসাধু ব্যবসায়ীকে কারাদন্ড ও অর্থদন্ড

বেশি দামে লবণ বিক্রি করায় কেরানীগঞ্জে ৩১ জন অসাধু ব্যবসায়ীকে কারাদন্ড ও অর্থদন্ড

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি :

বেশকয়েক দিন ধরে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায়,পেঁয়াজের চরম সংকট পার হচ্ছে দেশে। হঠাৎ পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় জনমনে হতাশা না কাটতেই এবার লবনের দাম বৃদ্ধির গুজব ছড়িয়ে গেছে সাড়াদেশে, শহরতলী ও তার আশপাশের এলাকা গুলোতে এই গুজবকে পূঁজি করে সাধারন মানুষের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের চেষ্টা করছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী।

বিভিন্ন এলাকার মত কেরানীগঞ্জেও এই গুজবের উপর @ করে অতিরিক্ত লবন মজুদ রাখার উদ্দেশ্যে ক্রয় ও বিক্রির মাধ্যমে অধিক অর্থ আদায় করছেন কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা। সারাদেশের ন্যায় কেরানীগঞ্জ উপজেলায় এই গুজব ও সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের সহযোগিতায় সকল হাটবাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় ৩১ ব্যবসায়ীকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও অর্থদন্ড প্রদান করেন।

গতকাল মঙ্গলবার(১৯নভেম্বর)বিকেল ৪ থেকে শুরু হয়ে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্তএ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী

ম্যাজিস্ট্রেট ও কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) অমিত দেব নাথ এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটর ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামরুল হাসান সোহেল।

এব্যাপারে অমিত দেব নাথ বলেন উপজেলায় গুজব রটে লবনের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ সংবাদের ভিত্তিত্বে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান

পরিচালনা করা হয়। এসময় দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা এলাকায় বিভিন্ন হাট-বাজার ও মুদি ব্যবসায়ী বিপুল পরিমান লবন গুদামজাত ও অধিক অর্থে

বিক্রি করার অপরাধে ১৮লবন ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জন অসাধু ব্যবসায়ীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেয়া হয় বাকী

চারজনকে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। কারাদন্ড প্রান্তরা হচ্ছেঃ মোঃ ইসমাইল, মোঃ ইমরান, মোঃ মুরাদ, মোঃ সালাম, মোঃ জামাল, মোঃ নাদিম, মোঃ

কুতুব উদ্দিন, মোঃ বাচ্চু, মোঃ কামাল, মোঃ জাহাঙ্গীর, মোঃ লাঁল চাঁন মোঃ সম্রাট মিয়া, মোঃ হাবিব, মোঃ আসলাম।

অর্থদন্ড প্রাপ্তরা হচ্ছেঃ মোঃ রাকিব, মোঃ কাউসার, মোঃ মমিন ও মোঃ গুলজার হোসেন।

অপরদিকে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার বিভিন্ন বাজার এলাকায় ও মুদি দোকানে অভিযান পরিচালনা করে ১৩জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা

হচ্ছে ঃ জিনজিরা আমিরাবাগ এলাকার মাশরাফি এন্টারপ্রইজ থেকে মোঃ ইলিয়াস ও মোঃ কুদ্দুস,জিনজিরা বাজার সাইদ ষ্টোর থেকে মোঃ মাসুদ,

মডেল টাউন এলাকার মুদি ব্যবসায়ী আব্দুল্লা ষ্টোরের মালিক মোঃ শরিফ,আটি বাজার ভাই ভাই ষ্টোর থেকে মোঃ সাহিদ,তাহের ষ্টোর থেকে আব্দুল

মোতালেব,কালিন্দী ইউনিয়নের নেকরোজবাগ এলাকার আখি ব্রাইটিস ষ্টোর থেকে মোঃ জহুরুল ইসলাম, ব্রম্মনকিত্তা এলাকার নুর আলম ষ্টোর থেকে

মোঃ নুর আলম,মনু ব্যাপরীর ঢাল এলাকার আবির ষ্টোর থেকে মোঃ মাসুদ, শাক্তা ইউনিয়নের মালঞ্চ এলাকার আব্দুল্লাহ ষ্টোর থেকে মোঃ রানা,

রোহিতপুর এলাকা থেকে মোঃ ইমান আলী, মোঃ মোস্তাফা ও মোঃ মজিবর।

পরে ভ্রম্যমান আদালত প্রত্যেক অসাধু ব্যবসায়ীকে নগদ তিন হাজার টাকা অর্থ দন্ড প্রদান করে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ বলেন কেউ সিন্ডিকেট করে দাম বাড়ালে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

About Md masud

Check Also

কেরানীগঞ্জে তিনটি কারখানা ও একটি ৬তলা হেলে পড়া ভবন সিলগালা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত

ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার জিনজিরা ইউনিয়নের বন্দডাকপাড়া এলাকায় হেলে পড়া একটি ৬তলা ভবনসহ তিনটি কারখানায় সিলগালা ...

আবারো কেরানীগঞ্জের সেই প্লাষ্টিক কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

বছর না ঘুরতেই কেরানীগঞ্জে সেই ‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানায় ফের আগিুকান্ডের ঘটনা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *