বুড়িগঙ্গা দূষন মুক্ত করতে কেরানীগঞ্জ তীরে বিআইডাব্লিউটির অভিযান

চলতি বছর ২৯ শে জানুয়ারী থেকে বুড়িগঙ্গা, তুরাগ ও বালু নদীর দুই পার দখল মুক্ত করতে ধারাবাহিক ভাবে অভিযান পরিচালনা করে বিআইডাব্লিউটিএ। ৫০ কার্য দিবসের এই অভিযানে বুড়িগঙ্গা দুই তীরের প্রায় সাড়ে চার হাজার স্থাপনা ভেঙে দেয় বিআইডাবিøউটিএ। বুড়িগঙ্গা দখল মুক্ত করার পরে এবার দূষন মুক্ত করার কার্যক্রম হাতে নিয়েছে বিআইডাব্লিউটিএ।

তার ধারাবাহিকতায় গতকাল রবিবার (১৫ ডিসেম্বর) কেরানীগঞ্জের তেলঘাট সংলগ্ন আলম মার্কেট এলাকায় বুড়িগঙ্গার বর্জ্য অপসারনের মাধ্যমে নদীর তীর পরিষ্কার অভিযান পরিচালনা করে বিআইডাব্লিউটিএ। এ সময় আলম মার্কেট ঘাটের পাশেই কেরানীগঞ্জ আঞ্চলিক শাখা যুবলীগের অস্থায়ী কার্যালয় ভেঙে দেয়া হয়। এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন বিআইডাবিøউটির যুগ্ন পরিচালক (ঢাকা বন্দর) এ কে এম আরিফ উদ্দিন।

এ কে এম আরিফ উদ্দিন বলেন, নদী রাষ্ট্রের সম্পদ, নদীকে হত্যা করা মানে রাষ্ট্রকে হত্যা করা। যারা নদীকে দূষন করে তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রোদ্রোহীতা মামলা হওয়া উচিত। বুড়িগঙ্গার এই পাশটা গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা যত জুট কাপড় ও নানা ধরনের ময়লা ফেলে নদীকে দূষিত করছে। আমরা বার বার পরিষ্কারের পরেও এই কাজটা তারা করেই যাচ্ছে। এবার শেষ বারের মতো পরিষ্কার করে দিয়ে গেলাম পরবর্তীতে আবার করলে ফৌজদারী মামলা দেয়া হবে। এছাড়া কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ কে এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আহŸান জানান তিনি।

এ বিষয়ে কেরানীগঞ্জ গার্মেন্টস ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মুসলিম ঢালী বলেন, এখানকার যে ময়লা গুলা আছে তা শুধু গার্মেন্টস এর ময়লা না, বাসাবাড়ির ময়লা ও আছে। সামাজিক ভাবে নদীর পরিবেশ ঠিক রাখা আমাদের সবার দায়িত্ব ভবিষ্যৎে যেন নদীর এই পাশটা ময়লা না হয়, সে জন্য উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতা নিয়ে আমরা নদীর তীরবর্তী অংশে ফুলের গাছ ও নেট লাগিয়ে দিবো। #

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,ডাকাতি মামলার ১৫ দিন পরে ৫ ডাকাত গ্রেপ্তার

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জে ডিজিটাল সাইনবোর্ডে ব্যাপক বিদ্যুৎ অপচয়

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ডিজিটাল সাইনবোর্ডের মাধ্যমে ব্যাপক বিদ্যুৎ অপচয় পরিলক্ষিত হয়েছে। সারাদেশে জ্বালানী ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের …

error: Content is protected !!