বিতর্কিত প্রক্টরের ইন্ধনে পত্রিকায় আগুন, তাল মিলিয়ে সাংবাদিকদের মূর্খ দাবি করলেন জবি উপাচার্য

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রক্টর ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক মোস্তফা কামালের বিরুদ্ধে পিএইচডি জালিয়াতির অভিযোগ বেশকিছু জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায় দৈনিক যুগান্তর ও ইনকিলাবসহ আরো কয়েকটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পুড়িয়েছে তার অনুসারীরা।

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) প্রক্টরের অনুসারী শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধন শেষে ভাষা শহীদ রফিক ভবনের সামনে তারা দৈনিক যুগান্তর ও ইনকিলাব সহ আরও বেশকিছু জাতীয় পত্রিকায় আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

এই ঘটনায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড.মীজানুর রহমান সাংবাদিকদের তাচ্ছিল্য করে বলেন, যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম কানুন জানেন না এমন মূর্খ সাংবাদিকরাই এধরনের সংবাদ লিখতে ও তৈরী করতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে সংবাদপত্র পোড়ানোর ঘটনায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির এক প্রতিবাদ বার্তায় সাংবাদিক সমিতির সভাপতির হুমায়ুন কবির ও সাধারণ সম্পাদক লতিফুল ইসলাম বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরকে নিয়ে সম্প্রতি কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের যথাযথ প্রমান ও নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে যাচাই করা।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সর্ব্বোচ্চ জায়গায় থেকে উপাচার্য সাংবাদিকদের মূর্খ হিসেবে অ্যাখ্যায়িত করে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সাংবাদিক সমাজ কোনভাবেই আশা করে না।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,তেজগাঁওয়ে পুলিশ-পোশাক শ্রমিক মুখোমুখি

Check Also

স্কাউট উদ্ধার অভিযান

কিশোরগঞ্জে স্কাউটস এর অগ্নি নির্বাপন ও ভুমিকম্প পরবর্তী উদ্ধার প্রশিক্ষণ

‘‘যথাযত প্রস্তুতি দুর্যোগে কমাবে ক্ষতি” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে চলমান ৩য় জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা স্কাউট …