ঢাকার সদরঘাট টার্মিনালে লঞ্চের কেবিন গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার

এ এইচ এম সাগরঃ ঢাকার সদরঘাট টার্মিনালে লঞ্চের কেবিন গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধা কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি ঃঢাকার সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে এম ভি মিতালী -(৭) লঞ্চের তৃতীয় তলার ৩০৯ নাম্বারকেবিন থাকে নীলুফা আক্তার (২২) নামের এক গৃহবধূ মৃতদেহ উদ্ধার করেছে সদরঘাটনৌ থানার পুলিশ।

পরে নৌ পুলিশ দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা পুলিরে কাছে লাশটি হস্তন্তরকরে। দক্ষিন কেরনীগঞ্জ থানা পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্যস্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। সদরঘাট নৌ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ রেজাউল করিম ভূইয়া জানান,যাত্রীবাহী লঞ্চ এম ভি মিতালী-(৭) সোমবার সকালে চাঁদপুর থেকে যাত্রী নিয়ে সকাল ৭টায় ঢাকা সদরঘাট টার্মিনালে পৌঁছে।

এ সময় সকাল ৮ পর্যন্ত সকল যাত্রী নেমেগেলে সাড়ে ৮ টায় লঞ্চে কেবিন বয়রা কেবিন পরিস্কার করতে গেলে ওই গৃহবধূর মৃতদেহ দেখতে পেয়ে নৌ পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে আমরা সকাল ৯ টায় দক্ষিনকেরানীগঞ্জ থানা পুলিশকে বিষয়টি অহতি করি। যেহেতু বুড়িগঙ্গা নদীর পানি দক্ষিনকেরানীগঞ্জ থানা এলাকার।

পরে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছলে আমরাউভয়ই লঞ্চে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করি। লাশের সাথে আইডি কার্ড থাকায় জানাযায় তার নাম নিলুফা আক্তার।

ধারনা করা হচ্ছে গৃহবধূটিকে ধর্ষনের পর শ্বাসরোধকরে হত্যা করা হয়েছে।এ ব্যাপারে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শাহজামান জানান, মৃতদেহেরসাথে থাকা আইডি কার্ড পাওয়ার পর আমরা সে ঠিকানায় খবর দিলে নিহতের ভাইমোঃ মনির থানায় এসে তার বোনের লাশ শনাক্ত করেন।

ময়না তদন্ত প্রতিবেধন আসলে ধর্ষনের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ব্যপারে নিহতের ভাই বাদী হয়ে দক্ষিণকেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,কেরানীগঞ্জে অবৈধ পানির কারখানার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জ উপজেলায় বাস্তবায়ন হচ্ছে বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের ব্যাপক কার্যক্রম

নিরাপদ ও বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের লক্ষ্যে ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার হযরতপুর ইউনিয়নকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে সমনি¦ত …

error: Content is protected !!