খুলনা -৬ আসনে নির্বাচনী জনসভা করেছেন : শেখ হেলাল

ইখতিয়ার উদ্দীন তপু খুলনা জেলা প্রতিনিধি: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে খুলনা-৬ আসনের আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব আকতারুজামান বাবু এর পক্ষে নির্বাচন প্ররচনা করতে এগিয়ে আসেন বঙ্গবন্ধু ভ্রাত্রপুত্র ও বাগেরহাট-১আসন থেকে বারবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দীন ।

পাইকগাছায় আয়োজিত নির্বাচন জনসভায় তিনি প্রধান অতিথি হিসাবে যোগদান করেন এই সময় শেখ হেলাল উদ্দীন এম,পি বলেন খুলনা-৬ আসন সবচেয়ে পিছিয়ে পড়া জনপদ এখানে মানুষের জিবনজাপন অনেক কষ্টের ,প্রাকৃতিক দূর্যোগ আয়লা ,সিডর (কয়রা-পাইকগাছা) কে বিশি ক্ষতিগ্রস্থ করেছে । এখন সময় এসেছে দিনবদলের প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে দেশ আজ নিম্ন-মধ্য আয়ের দেশে পরিনীত হয়েছে ,ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দিয়েছে ,ছেলে-মেয়েদের হাতে বছরের শুরু থেকে বিনামুল্যে নতুন বই দিচ্ছে এবং নিজের দেশের অর্থায়নে গড়ে উটছে স্বপ্নের পদ্মাসেতু

তাই তিনি উন্নয়েনের ধারা অব্যহত রাখতে খুলনা-৬ আসনের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব আকতারুজামান বাবু কে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে বলেন।

তিনি আরো বলেন, যদি আকতারুজামান বাবু বিজয়ী হয় তাহলে (কয়রা-পাইকগাছা)
মানুষের যে প্রধান সমেস্যা ভেরিবাধ তার সমাধান হয়ে যাবে ।

জনসভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বর্তমান সংসদ সদস্য এ্যাডঃআলহাজ্ব নরুল হক ,সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডঃ সোহরাব আলী সানা,খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হারুন-অর-রশীদ এছাড়া ও আরো অনেক নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন। বক্তরা বলেন সব কিছু ভুলে গিয়ে নৌকা কে বিজয়ী করতে হবে।

আরো পড়ুন: শিশুর পেটে শিশু।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া গ্রামের বাবুল রায়ের ১২ বছরের মেয়ে বিথিকা রায়। স্থানীয় মলানপুকুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী সে।

গত দশদিন আগে হঠাৎ করেই বিথিকার শারীরিক পরিবর্তন ঘটতে শুরু করে। তার পেট হঠাৎ করেই ফুলতে থাকে। এতে ঘাবড়ে যায় পরিবারের লোকজন। সবার ধারণা হয় সে হয়তো কারও দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে।

ভয় থেকেই ছুটে যায় ডাক্তারের কাছে। তবে স্থানীয় ডাক্তারের কাছে না গিয়ে যায় রংপুরের এক ডাক্তারের কাছে। চিকিৎসক প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে জানান বিথিকার পেটে বড় আকারের টিউমার রয়েছে। যা জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন করা প্রয়োজন।

এদিকে পেশায় দিনমজুর বাবুল রায় রংপুরে অপারেশন করার সামর্থ্য না থাকায় মেয়েকে নিয়ে ঠাকুরগাঁও হাসান এক্স-রে ক্লিনিকে ভর্তি করে ডা. মো. নুরুজ্জামান জুয়েলের শরণাপন্ন হন। ডা. জুয়েল ঝুঁকিপূর্ণ অপারেশন হওয়ায় প্রথমে রাজী হননি। পরে বাবুলের আর্থিক অবস্থা বিবেচনা করে অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন।

 

নিউজ ঢাকা ২৪।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

সরকার বেশী দিন ক্ষমতায় নাইঃ গয়েশ্বর

এই সরকার আর বেশী দিন ক্ষমতায় নাই। এই দেশে সব জিনিসের দাম বেড়েছে। শুধু দাম …

error: Content is protected !!