একজন কর্মী বান্ধব যুব নেতা, যুব বন্ধু শিপু আহমেদ

দিন বদলের ছোয়ায় কেরানীগঞ্জের রাজনীতিতে এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন। দক্ষিন কেরানীগঞ্জের যুবলীগের নেতাকর্মীরা আগামী কমিটিতে একজন যোগ্য নেতাকে তাদের সভাপতি হিসেবে দেখতে চায়। সব দিক থেকে বিবেচনা করলে তৃণমূলের পছন্দ শিপু আহমেদ।

রাজনীতির মাঠ থেকে শুরু করে সব ধরনের কর্মকান্ডে পাওয়া যায় তরুন এ যুবলীগ নেতাকে। যে কোন সামাজিক কর্মকান্ডের জন্য যে কোন সংগঠন বা প্রতিষ্ঠান ই তার কাছে যাক না কেন, তিনি সবাইকে উৎসাহিত করে থাকেন।  এছাড়া খোজ নিয়ে যানা যায়, নেতাকর্মীরা যে কোন বিপদে আপদে, প্রয়োজনে খুব সহজেই তাকে কাছে পায়।

কেরানীগঞ্জের তরুণ  নেতা হাজী রাসেল জানান, আমাদের রাজনীতিতে আস্থাভাজন নেতা শিপু আহমেদ। আমাদের সবার সাথে তার সম্পর্ক খুবই আন্তরিক। প্রতিটা কর্মীর খোজ খবর তিনি প্রতিনিয়ত রাখেন। তৃণমূলের সবাই এক বাক্যে তাকে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার যুবলীগের আগামী কমিটিতে সভাপতি হিসেবে পেতে চায়। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস তার হাতে দক্ষিন কেরানীগঞ্জের যুবলীগের নেতৃত্ব দেয়া হলে, দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা যুবলীগ আরে শক্তিশালী এবং গুছানো একটি সংগঠনে রুপান্তরিত হবে।

এ বিষয়ে শিপু আহমেদের সাথে কথা হলে তিনি যানান, কর্মীরাই হচ্ছে একটি সংগঠনের প্রাণ। কর্মী ছাড়া নেতারা মূল্যহীন। তৃণমূলের সকল নেতাকর্মী আমাকে ভালোবাসে, আমি ও সব সময় তাদের পাশে থাকার চেষ্টা করি। সব সময় তাদের পাশে থাকতে চাই। সামনের দিন গুলোতে নসরুল হামিদ বিপু ভাই ও শাহীন আহমেদ ভাই যে দায়িত্ব দিবেন তা সকলের ভালোবাসা ও সমর্থন নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,লালপুরে নবনির্মিত মাদ্রাসার দ্বিতল ভবনের উদ্বোধন

Check Also

নির্বাচন কমিশন

চারধাপে ৩৪৪ টি উপজেলার ভোট কবে হবে জানালো ইসি

দেশের ছয়টি নির্বাচনি অঞ্চলের মধ্যে ৩৪৪টি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন কবে হবে তা জানালো নির্বাচন কমিশন …