Breaking News
Home / উদ্যোগ / অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না জয়বাংলা মৌলভী

অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না জয়বাংলা মৌলভী

বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর জনাব রফিক উদ্দিন ভূইয়া। যাকে বঙ্গবন্ধুর নিজে মুখের উপাধী ” জয়বাংলা মৌলভী।” বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহোচর হয়েও আজ টাকার অভাবে সঠিক চিকিৎসা নিতে পারছেন না।

বাহান্নর ভাষা আন্দোলন, উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান, সত্তরের নির্বাচন আর স্বাধীনতা আন্দোলনে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার প্রেক্ষাপট ছিল অভিন্ন।
১৯৭০ সালে বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর জনাব রফিক উদ্দিন ভূইয়া নান্দাইলের উপজেলার ঐতিহাসিক চন্ডীপাশা স্কুল মাঠে বিশাল জনসভার আযোজন করেন। বঙ্গবন্ধু সহ তৎকালীন আওয়ামীলীগের বর্ষিয়ান নেতারা সভামঞ্চে বসে আছেন। অন্যদিকে নান্দাইলের নুরুল আমিন ছিলেন পূর্বপাকিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী। আওয়ামীলীগের জনসেবায় নুরুল আমিনের লাঠিবাহিনীর ভয়ে কেউ কোরান তেলওয়াতে রাজি হচ্ছিলেন না। অনেক চেষ্টার পরও যখন কাউকে পাওয়া যাচ্ছিল না। তখন মাইকে কোরান তেলওয়াত করার জন্য উন্মুক্ত ভাবে ঘোষণা করা হলো।
নান্দাইল এর কাকচর নিবাসী মরহুম কোলির বাপের পুত্র টগবগে যুবক, দীর্ঘদেহের এক তরুণ মৌলানা আব্দুল মজিত খান কোরান তেলওয়াতের জন্য সভাস্থ থেকে উঠে দাঁড়ালেন।সভামঞ্চে অস্হিরতা কেটে গেল।
বীর দর্পণে সভামঞ্চে এসে দাঁড়ালেন মৌলানা আব্দুল মজিত খান। নির্ভয়ে কোরান তেলওয়াত করলেন। তাঁর সাহসিকতার জন্য, বঙ্গবন্ধু নিজ মুখে তাকে ” জয় বাংলা মৌলভী ” উপাধীতে ভূষিত করলেন। পরবর্তীতে মৌলানা সাহেবকে হিন্দুদের নেতা বলে, নুরুল আমিনের পেটোয়া বাহিনী মসজিদের ইমামতী চাকরী থেকে চাকরী চ্যুত করে।

সেই জয়বাংলা মৌলভী আজ বার্ধক্যজনিত কারনে ; তাঁহার শরীরের বিভিন্ন অংশে বিভিন্ন রোগে বাসা বেঁধেছে। চিকিৎসা করানোর মতো অর্থ তাঁর নেই। তবুও বঙ্গবন্ধুর নাম বুকে নিয়ে বাঁচতে চায়। তাঁর চিকিৎসার জন্য হৃদয়বান ব্যক্তিদের হাত প্রসারিত করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ রইলো।
বঙ্গবন্ধুর জীবন দশায় ইচ্ছে করলে তিনি অনেক কিছু আদায় করতে পারতেন।

আওয়ামীলীগের নাম ভাঙিয়ে যেখানে অনেকে শত কোটি টাকার মালিক সেখানে রফিক উদ্দীনের মতো ত্যাগীরা সামানয় কিছু টাকার অভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত। ত্যাগীরা এমনিই হয়, ” দিতে জানে, নিতে জানে না। ”

সাইদুর রহমান
লেখক ও কলামিস্ট।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

About নিউজ ঢাকা ২৪

Check Also

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ

ইসমাইল হোসেন টিটু : স্বাধীনতার পক্ষে লড়াই করা প্রথিতযশা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে ...

যেদিন পুলিশের চাকরিতে যোগদান, সেদিন থেকে কত কথা বলার অধিকার হারিয়েছি

ইসমাইল হোসেন টিটু:  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রায়ই আলোচনায় আসেন সূত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *