বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় মানবেতর জীবনযাপন কাম্য নয়

 সজিবুল ইসলাম হৃদয়, নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের লালপুর উপজেলার ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস লিঃ এখন চরম অর্থ সংকটে ভুগছে। যার কারণে লালপুর উপজেলার অধিকাংশ মানুষ টাকার অভাবে মানবেতর জীবনযাপন করছে।

সময়মত চিনি বিক্রি না হওয়ায় এবং চিনির বিক্রয় মূল্য উৎপাদন খরচ অপেক্ষা কম হওয়ায় বর্তমানে শ্রমিক কর্মচারীরা ৩ মাসের বেতন ও অাখ চাষীদের অাখের টাকা দিতে পারছে না। তিন মাস ধরে বেতন না পাওয়ায় ও অাখ চাষীদের অাখের টাকা পরিশোধ না করায় মিলের সহস্রাধিক শ্রমিক কর্মচারী, অাখ চাষী, দিনমজুর সহ অত্র এলাকার দোকানদারের পরিবার পযন্ত মানবেতর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছে।

অত্র সুগার মিলের আশেপাশের এলাকা গুলোর সাধারণ মানুষ অর্থনৈতিক ভাবে মিলের উপর নির্ভরশীল। শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন ও অাখ চাষীদের আখের টাকা পরিশোধ না করায় তারা তাদের জমিতে কাজ করা দিন মজুর, গাড়ি চালক, মুদি দোকান দের বাকির টাকা দিতে পারছে না।

যার ফলে তাদের সাথে দিনমজুর, গাড়ি চালক, দোকানদার সহ সাধারণ মানুষ অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে। যার ফলে বিপাকে পড়েছে অত্র সাধারণ মানুষ গুলো। ভুক্তভোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তিন মাস ধরে বেতন না হওয়ায় ও অাখের টাকা পরিশোধ না করায় তারা সংসারের প্রয়োজন, ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার খরচ,চিকিৎসা খরচসহ প্রয়োজনীয় খরচ মেটাতে পারছেনা।

শুধু তাই নয় অর্থের প্রয়োজন মেটাতে তাদের সুদেরে ওপর টাকা নিতে হচ্ছে। আর এভাবে দিনে দিনে বাড়ছে ঋণের বোঝা। অাব্দুল হামিদ নামে এক ভুক্তভোগী জানান, টাকার অভাবে ছেলে-মেয়েদের লেখা পড়ার খরচ, পিতা-মাতার চিকিৎসাসহ সংসার চালাতে পারছিনা। যে সব দোকানে মাসিক বাকিতে পণ্য নিতাম, কয়েক মাস ধরে টাকা না দেয়ায় তারাও আর বাকিতে জিনিস দিচ্ছে না।

এমতাবস্থায়, দেশ যখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব এগিয়ে যাচ্ছে তখন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় একটি বৃহত্তর এলাকার মানুষ মানবেতর জীবন যাপন করবে এটা কারই কাম্য নয় জানিয়ে দ্রুত সমস্যা সমাধানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন অত্র এলাকার সাধারণ মানুষ। উল্লেখ্য, রাষ্টয়ত্ত্ব এ শিল্প প্রতিষ্ঠানটি শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন বিগত ৪-৫ বছরের মধ্যে একটি মাসেও সঠিক সময়ে পায়নি। এবার তিন মাস পার হলেও এখন পর্যন্ত বেতনের কোন খবর তাদের কাছে নেই। প্রতিষ্ঠানটির কাছে বেতন বাবদ এখন কর্মকর্তা ও শ্রমিক-কর্মচারীদের পাওনা প্রায় ১০ কোটি টাকা এবং অাখ চাষীদের পাওনা প্রায় ১৫ কোটি টাকা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ঝিকরগাছায় বাল্য বিবাহ বন্ধ  করলো উপজেলা প্রশাসন

আক্তার মাহমুদ, ঝিকরগাছা : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ বন্ধ হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!