Breaking News
Home / উদ্যোগ / উদ্যোগঃ শ্রেণী শৃঙ্খল ভাঙার হাতিয়ার ।

উদ্যোগঃ শ্রেণী শৃঙ্খল ভাঙার হাতিয়ার ।

তরুন প্রজন্মের অনেকেই এখন নতুন উদ্যোগ হাতে নিচ্ছে  । কেউ কেউ সফল হচ্ছে কেউ কেউ ব্যর্থ হচ্ছে । যারা সফল হচ্ছে তাঁদের সফলাতার রহস্য পত্র-পত্রিকা,ব্লগ,সোসাল মিডিয়ায় হরহামেশাই দেখা যায় । কিন্তু যারা ব্যর্থ হচ্ছে তাঁদের কি হাল ? তাঁদের বেহাল দশা তাঁরা ভিন্ন অন্য কেউ তেমন করে বোঝে না এমন কি প্রকৃত অবস্থাটা বর্ণনা করাও অন্যের পক্ষে দুষ্কর।
আমি আমার এই লেখায় সফলদের সফলতার রহস্য ভেদ করবো না । আমি ব্যর্থদের অবস্থানটা তুলে ধরার চেষ্টা করবো । তাঁর আগে দেখি কেন এই প্রজন্মের তরুনরা উদ্যোগতা হচ্ছেন ।

উদ্যোগ১ উচ্চাকাঙ্ক্ষী যুবকরা উদ্যোক্তা হচ্ছেন ।
২ কাঠামো বদ্ধ জীবন যাপনে অনাগ্রহী যুবকরা উদ্যোক্তা হচ্ছেন । নয়টা পাচটা অফিস ও অন্যের অধীনে চাকরী মেনে নিতে পারছে না বলে অনেকে উদ্যোক্তা হচ্ছেন ।
৩ চাকরীর বাজারে দুর্নীতি, অনিয়ম ও লবিং এর দৌড়ঝাঁপ করার ইচ্ছা ও শক্তি দুটোর একটাও নাই তাই উদ্যোক্তা হচ্ছেন ।
৪ মানসম্মত জীবন যাপনের ব্যয় বৃদ্ধি ও অন্যন্য পেশায় সেই অনুযায়ী আয়ের দুরবস্থা দেখে হতাশায় ভোগে উদ্যোক্তা হচ্ছেন ।
৫ ঠিক মত পড়ালেখা করতে না পারার হতাশা থেকে উদ্যোক্তা হচ্ছেন।
৬ সফলদের গল্প শোনে উদ্যোক্তা হচ্ছেন ।
৭ পারিবারিক ঐতিহ্য ব্যবসা। তাঁদের অনেকেই পুরাতন ব্যবসার হাল ধরে তাঁকে সামনে এগিয়ে নিতে উদ্যোক্তা হচ্ছেন।

যে যেই দৃষ্টি ভঙ্গি থেকে উদ্যোক্তা হচ্ছেন তাঁরা হচ্ছেন । মোদ্দা কথা নতুন প্রজন্মের উদ্যোগ গ্রহণের প্রবণতা বাড়ছে । এই প্রবণতা বাড়ার অন্যতম প্রধান কারণ তথ্যের অবমুক্তি ও যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়ন। প্রযুক্তির দ্রুত বিকাশ এই ক্ষেত্রে প্রধান সহায়ক । জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও উপর্যুক্ত কারণ সমুহের দরুন আমাদের দেশে নবীন উদ্যোগতার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।
এই ক্রমবর্ধমান উদ্যোগতা গোষ্ঠীর অধিকাংশ ব্যর্থ । আমার এই লেখার মুল প্রতিপাদ্য বিষয় তাঁদের ব্যর্থতার কারণ খুজে বের করা । আসুন দেখি কেন তাঁরা ব্যর্থ হচ্ছে।

১ নতুনদের ব্যবসায় ব্যর্থতার প্রধান কারণ তাঁরা উদ্যোগকে ভালবাসে উদ্যোক্তা হচ্ছেন না । তাঁরা অনেকেই বাধ্য হয়ে আসছেন বা বিকল্প পেশা হিসেবে উদ্যোক্তা হচ্ছেন । যেহেতু চাকরীতে এই সমস্যা বা যেহেতু চাকরী পাচ্ছি না সুতরাং ব্যবসা করবো  এমন মনমানসিকতাও দেখা যায়।

এই মানসিকতা থেকে উদ্যোগতা হলে ব্যর্থতা স্বাভাবিক । ছোট বেলা থেকে সপ্ন দেখে আসছেন, এই চাকরী করবো, সেই চাকরী করবো, তাতে তাঁর কল্পনার জগতে ওঁই চাকরীর সাথে তাঁর প্রেম হচ্ছে । আমি অনেক কে দেখেছি আর্মিতে চাকরী করার সপ্নে বিভোর হয়ে “বুকের ছাতি” ফুলিয়ে রাস্তায় হাটে, সর্বদা “মাথার চুল” ছোট করে ছাটে । বিসিএস ক্যাডার হবে এই স্বপ্নে বিভোর হয়ে নিজের মধ্যে একটা অযাচিত গাম্ভীর্য ধরে রাখে । বিভিধ কারণে যারা তাঁর কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌছাতে পারে না তখন ব্যবসায় আসে । তখন বিষয়টা আসলে কি দ্বাড়ায় ? রাত কাটাচ্ছি বউয়ের সাথে আর মনের অলিন্দে নাচে পার্বতী।

বলি ভাই প্রেমহীন এই জগতে কোন সপ্ন পূরণ হয় ? শচিন টেন্ডুকার ক্রিকেটকে ভালো না বাসলে কি শচিন হইতো ? আপনি কি এমন কোন সফল ব্যক্তির কথা জানেন যে সে তাঁর কর্মকে ভালো না বাসে সফল হইছেন ? আমার জানা নাই।

বিখ্যাত ব্যক্তিদের কথা বাদ দিলাম। নিজের দিকে খেয়াল করুণ। টিন এজ (১২/১৩) থেকে আপনি (২০/২১) পর্যন্ত অন্য একটা পেশাকে ভালোবেসে আসছেন । আর ২৫/২৬ এসে উদ্যোক্তা হবেন মন স্থির করলেন। আপনি ৩০ এ সফল হতে চান । তাও সে কাজে আপনার ভালোবাসা নাই । বিষয়টা হাস্যকর দেখায় না?

উদ্যোগে সফল হওয়ার মূলমন্ত্র উদ্যোগের প্রতি ভালবাসা । তাই ব্যবসায় সফল হতে হলে ব্যবসাকে ভালবাসুন । সে যত ছোট ব্যবসাই হোক ।

২.আমার প্রিয় শিক্ষক অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ স্যার একটা কথা বলেছিলেন “বড় হওয়ার কোন শর্টকাট রাস্তা নাই ।” আমাদের নতুন উদ্যোগতাদের মধ্যে অনেকেই উদ্যোগ গ্রহণ করেই  সফল হতে চান । রাতারাতি সফল হওয়ার চেষ্টা তাঁদের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয় । মনে রাখবেন অধিক চাপ মাথায় নিয়ে খেললে অনেক ভালো ব্যাটসম্যানও ভুল খেলে । ব্যবসায় সফল হওয়ার ক্ষেত্রে ধৈর্যের বিকল্প নাই । রাতারাতি সফল হওয়ার বাড়তি চাপ না নিয়ে ধৈর্য ধরুন, সঠিক পরিশ্রম করুন, সফল হবেন।

৩ অনেকেই উদ্যোগের ধরণ নির্বাচন করতে ভুল করে । আপনার ভালো ধারণা না থাকলে সেই কাজে না যাওয়াই উত্তম । নিজের ভালো ধারণা না থাকলেও আপনার বিস্বস্থ ও খুব কাছে মানুষ কারো যদি অভিজ্ঞতা থাকে তবে তাঁর সাহায্য ও পরামর্শ নিন।

৪ সফল উদ্যোগ মানে রয়ালিটি । রয়ালিটি মানে অন্যের ঘাড়ে বন্দুক রেখে নিজে শিকার করা । এই রয়ালিটি সুখ সারাজীবন পেতে চাইলে আগে নিজের কাধে বন্দুক রেখে অন্যকে গুলি করতে দেন । আপনি যে সেক্টরে ব্যবসা করতে চান সম্ভব হলে সেই সেক্টরে আগে কিছুদিন অন্যের অধীনে চাকুরী করুণ । এবং সেই চাকুরীর সময়টাকে আপনার প্রশিক্ষণ হিসেবে নিন ।

৫ ব্যবসা মানে ঝুকি । ব্যবসায় নেমে আপনি ফতুর, রাজা দুটোই হতে পারেন । এই দুটো ফলাফলকেই মেনে নিতে আপনাকে প্রস্তুত থাকতে হবে। ফতুর হলে সেই সময়ের কস্ট মেনে নেওয়ার মানসিকতা নিজের মধ্যে রাখুন।

৬ উদ্যোগতার ব্যর্থতা বলে কিছু নেই ।উদ্যোগ গ্রহণ করাই উদ্যোক্তার সফলতা। বাকিটা তাঁর ফসল। সমাজের বেধে দেওয়া সময়ে সফল না হলেই আপনি অনেক কিছু হারাতে পারেন ।

৭ ব্যবসার ক্ষেত্রে একনিষ্ঠা একান্ত প্রয়োজন । গার্লফ্রেন্ডের মতো ব্যবসা বার বার চেঞ্জ করবেন না । অন্তত সফল না হওয়া পর্যন্ত সে ব্যবসায় লেগে থাকুন।
ব্যবসায় যারা ইতোমধ্যে নেমে গেছেন তাঁরা জেনে রাখুন উদ্যোগ শুধু আপনার জীবিকা নয় , আপনার শ্রেনী শৃঙ্খল ভাঙার হাতিয়ার।

একটি প্রজন্ম একটি সমাজ শ্রেণীকে অতিক্রম করবে এটা স্বাভাবিক । এটাই প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়ম । মানব জীবনের লক্ষ্য তাই হওয়া উচিত। একজন নিম্নবিত্ত কৃষকের ছেলে পড়ালেখা শেষ করে চাকুরীজীবি হতেই পারে । অর্থাৎ নিম্নবিত্ত থেকে নিম্ন মধ্যবিত্ত হবে । এমন কি সুবিধাজনক চাকুরী না হলে আবার নিম্নবিত্তও হতে পারে। কেননা জীবন যাপনের লাগামহীন খরচ ও আমাদের দেশের মত উচ্চ মুদ্রাস্ফীতির দেশে আপনার চাকুরীর বেতন বৃদ্ধির হার, ব্যয় বৃদ্ধির তুলনায় যৎসামান্য । দীর্ঘদিন সফলতার সাথে চাকুরী করে আপনি একটি শ্রেনী অতিক্রম করে নিম্ন বিত্ত থেকে নিম্ন মধ্যবিত্ত হতে পারেন।

আপনার উদ্যাগ সফল হলে আপনি একাধিক শ্রেণী অতিক্রম করতে পারবেন অতি সহজে । সমাজে এমন গল্প ভুড়ি ভুড়ি । মাথায় করে তেল বেচতে বেচতে এখন সময়ের সবচেয়ে দামী গাড়িতে চড়ে ঘুরে বেড়ান আর তাঁর সহপাঠী এখনো অফিসে মাথা ঠুকে সংসার চালাতে হিমশিম খায় । আপনাকে এই শ্রেনী শৃঙ্খল ভাঙাতে হলে যুদ্ধ করতে হবে । আমাদের দেশের এটা আরো কঠিন । কাঠামো বদ্ধ জীবনযাপন ও পেশা নির্বাচন এই চিন্তার বাইরে আমাদের অভিবাবকদের মন এখনো যায় নাই । আপনাকে পথ চলতে হবে বৈরী স্রোতে একা । সাহস হারাবেন না। নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখুন। সাফল্য আসবেই।

জয় হোক সকল উদ্যোগতার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

About Faisal Hawree

Check Also

করোনা:অকারণে সাধারণ মানুষকে হয়রানি নয়: তথ্যমন্ত্রী

রাস্তাঘাটে সাধারণ মানুষকে অকারণে হয়রানি না করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী ...

কেরানীগঞ্জে সকল বেসরকারি হাসপাতালে বিএমডিসি রেজিষ্ট্রেশনসহ বিলবোর্ড স্থাপন বাধ্যতামূলক করেছে উপজেলা প্রশাসন

মুজিববর্ষ উপলক্ষে কেরানীগঞ্জ উপজেলায় সকল বেসরকারি হাসপাতালে ডাক্তারদের নামের নিচে বিএমডিসি রেজিষ্ট্রেশন নম্বর উল্লেখ করে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *