র‌্যাব-১০

র‌্যাব-১০ কেরানীগঞ্জ ক্যাম্পের পৃথক দুটি অভিযানে আট হাজার পিছ ইয়াবাসহ তিন মাদক কারবারী আটক

র‌্যাব ১০ কেরানীগঞ্জ ক্যাম্প পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে আট হাজার পিস ইয়াবাসহ তিন মাদক কারবারী আটক করেছে। রবিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে মহিলাসহ তিন মাদক কারবারি আটক করে র‍্যাব ১০ এর সিপিসি-২ টিম।

আটককৃতরা হচ্ছে : মোছাঃ মুর্শিদা বেগম রুনা (৩৫), মোঃ রুবেল (২৮) ও আহমেদ জায়েদ বিন বাশার (২৭)। আটকৃকতদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলার করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন র‌্যাব সদস্যরা।

র‌্যাব-১০ কেরানীগঞ্জ ক্যাম্প সুত্রে জানা যায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমাদের মাদকের ওপর আমাদের বিশেষ অভিযান চলছে।  রবিবার সন্ধ্যা ৬টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-১০ সিপিসি ২ জানতে পারেন যে, দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানাধীন শুভাঢ্যা পূর্বপাড়া চুনকুটিয়া চৌরাস্তা এলাকায় আজিজ ম্যানসন এর ৪র্থ তলায় একদল মাদক কারবারি আত্মগোপন করে মাদক বিক্রি করে আসছে। এ সংবাদের ভিত্তিত্বে র‌্যাব-১০ কেরানীগঞ্জ কোম্পানী কমান্ডার মেজর সৈয়দ ইমরান এর নেতৃত্বে ওই বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে মুর্শিদা নামের এক মহিলাকে আটক করা হয়। পরে আটককৃত মহিলার দেখানো মোতাবেক ঘরের তোশকের নিচ থেকে ২০টি সাদা পলেথিনের জিপারে (২০০৭) দুই হাজার সাত পিছ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তার গ্রামের বাড়ি খুলনা জেলার সোনাডাঙ্গা থানার সবুজবাগ আবাসিক এলাকায়। তার স্বামীর নাম মোঃ আল আমিন। সে আটককৃত ঠিকানায় বসবাস করে মাদক বিক্রি করে আসছিল।

এরপর তাকে র‌্যাব ক্যাম্পে নিয়ে এসে আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তখন তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানা ১১০ শরৎচন্দ্রগুপ্ত লেন এলাকার অভিযান চালিয়ে একটি কুরিয়ার সার্ভিস থেকে পার্সেল বুজে নেওয়ার সময় দুই যুবক রুবেল ও বাশারকে আটক করা হয়। আটককৃতদের দখলে থাকা পার্সেল থেকে ৬০টি পলেথিনের জিপারে ৬০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরে আটককৃত ওই দুই যুবকের দেহ তল্লাসি করে ইয়াবা বিক্রির নগদ এক লাখ তেইশ হাজার টাকা ও তিনটি মোবাইল সেট উদ্ধার করে র‌্যাব-১০ কেরানীগঞ্জ ক্যাম্পে আনা হয়।

আটককৃত রুবেলের বাড়ি ভোলা জেলার লালমোহন থানার বাটামারা গ্রামে। তার পিতার নাম মৃত কাঞ্চন মিয়া ও বাশারের বাড়ি চট্রগ্রাম জেলার আনোয়ার থানার বাখাইন গ্রামে। তার পিতার নাম মৃত খায়রুল বাশার।

র‌্যাব-১০ কেরানীগঞ্জ কোম্পানী কমান্ডার মেজর সৈয়দ ইমরান বলেন, আটককৃতরা প্রকৃত পক্ষে মাদক কারবারি। তারা ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে অর্ডার নিয়ে চট্রগ্রাম থেকে নিষিদ্ধ ইয়াবা টেবলেটসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে থাকে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে পৃথক পৃথক থানায় র‌্যাব বাদী হয়ে মাদক আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। #

এ.এইচ এম সাগর

নিউজ ঢাকা

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

রংপুর বিভাগে শ্রেষ্ঠ ডিসি হলেন গাইবান্ধা জেলার আবদুল মতিন 

  মো:শামসুর রহমান হৃদয়,গাইবান্ধা প্রতিনিধি :গাইবান্ধার জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন রংপুর বিভাগের জেলার জেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!