সুন্দরী গাছ

বিলুপ্তির পথে সুন্দরবনের সুন্দরী গাছ !

ইকতিয়ার উদ্দীন তপু ,খুলনা জেলা প্রতিনিধি: সুন্দরী গাছের নামেই বনের নাম সুন্দরবন। কিন্তু নীরব এক রোগে সেই সুন্দরী গাছই বিলুপ্ত হতে বসেছে । সুন্দরবনের ভিতরে নদী দিয়ে এগোলেই নজরে পড়ে মাইলের পর মাইলজুড়ে সুন্দরী গাছের কঙ্কাল। এ যেন সুন্দরী গাছের কঙ্কালে ভরা সুন্দরবন।

সরেজমিনে সুন্দরবনের বেশ কয়েকটি স্থান ঘুরে নজরে পড়েছে সারি সারি মৃত সুন্দরী গাছ এর চিত্র। সবুজ ঘন বনের ভেতর শুকিয়ে কালো হয়ে পত্রশূন্য সুন্দরী গাছগুলো দাঁড়িয়ে আছে। এগুলো মারা গেছে ‘আগামরা’ (টপ ডাইং) রোগে এমন মন্তব্য বন ও প্রকৃতি বিশেষজ্ঞদের।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সুন্দরবনের গাছের মধ্যে সুন্দরী গাছ এর লবণ সহিষ্নুতা কম। ফলে সুন্দরবনের মধ্যে লবণাক্ত এলকার সুন্দরী গাছে আগামরা রোগের প্রকোপ বেশি দেখা দিয়েছে। সিডর ও আইলায় সাগরের লোনা পানিতে বন প্লাবিত হওয়ায় পর থেকেই বনের মধ্যে লবণাক্ততার পরিমাণ বেড়ে যায়। ফলে সুন্দরী গাছে টপডায়িং রোগ ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে বনের ভেতর হাজার হাজার আগামরা গাছ পাওয়া যাচ্ছে।

কয়রা উপজেলার উত্তর বেদকাশী এলাকার বাসিন্দা প্রশান্ত কর (৪০) বন বিভাগের বজবজা টহল ফাঁড়ীর কাজে দিন-রাত ঘুরে বেড়ান সুন্দরবনের আনাচে-কানাচে। তিনি বলেন, ছোটবেলায় দেখা সেই সবুজ ঘন বন খুঁজে পেতে এখন বনের গহিনে যেতে হয়। এক বন কর্মচারী জানান তাঁর সরেজমিনের অভিজ্ঞতা।

তিনি বলেন, গত দশ বছরে সুন্দরবনে আগামরা রোগের প্রকোপ ব্যাপকহারে বেড়েছে। বন বিভাগের নতুন কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী, সুন্দরবন থেকে বনজ সম্পদ আহরণের সিদ্ধান্ত বদল হওয়া এর একটি অন্যতম কারণ। মৃত গাছগুলো কেটে সরিয়ে না ফেলায় সেগুলো থেকে ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। বিষয়টি নিয়ে কথা হয় পরিবেশবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুল্লাহ হারুন চৌধুরীর সঙ্গে, তিনি বলেন, সুন্দরবনের মাটি ও পানিতে লবণাক্ততা বাড়ার কারণেই মূলত সুন্দরীগাছ মরে যাচ্ছে। গাছের উচ্চতাও কমছে। তিনি আরও বলেন, সুন্দরীর বীজ লবণাক্ত পানিতে পড়ার কারণে তা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। নতুন গাছ কম জন্মাচ্ছে। কারণ লবণাক্ততা বেড়ে যাওয়ায় মাটির পারস্পরিক সম্পৃক্ততা (কণা) দুর্বল হয়ে যায়। এমনকি শুষ্ক মৌসুমে সুন্দরবনের নদ-নদীতে লবণাক্ততা ৩০ পিপিএম পর্যন্ত বেড়ে যাচ্ছে। এছাড়া লবণাক্ততার কারণে সুন্দরবনের উদ্ভিদরাজির রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যাচ্ছে।

নিউজ ঢাকা ২৪।

জিডি করার নিয়ম পড়ুন:

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

লালপুরে ৮০ বছরের বৃদ্ধের আত্মহত্যা

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধিঃ  নাটোরের লালপুরে বিষপান করে জলিল খামারু (৮০) নামের এক বৃদ্ধ আত্মহত্যা করেছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!