সাকিব আল হাসান

নির্বাচন করছেন না সাকিব আল হাসান

আগামী নির্বাচনে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টেষ্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান অংশগ্রহন করবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ১০ ই নভেম্বর রাতে তিনি বলেন আমি আমার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি। এখন আপাতত নির্বাচন করবো না।

শেষ মুহুর্তে কেন সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করলেন এমন প্রশ্নের জবাব দেন নি সাকিব।

রোববার তার আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পত্র কেনার কথা ছিল। আগে থেকেই ঘোষনা দিয়েছিলেন সাকিব তিনি মাগুরা ১ আসনের মনোনয়ন পত্র জমা দিবেন।

শনিবার সকাল বেলা ওবায়দুল কাদের নিশ্চিত করে বলেছিলেন আগামীকাল (রবিবার) সাকিব-মাশরাফি দুই জনই দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করবেন। তাদের দুজনকেই সাক্ষাতের জন্য যেতে বলা হয়েছে।

 

এদিকে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফর্ম তুলছেন বলে গতকাল দুপুরে দলটির পক্ষ থেকে জানানো হলেও রাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ভিন্ন বার্তা এসেছে বলে জানা গেছে। প্রধানমন্ত্রী সাকিবকে তার খেলা চালিয়ে যেতে বলেছেন বলে তার কার্যলয়ের একজন সিনিয়র কর্মকর্তার কাছ থেকে জানা যায়।

মাশরাফি নড়াইল এবং সাকিব মাগুরা থেকে নির্বাচনে অংশগ্রহন করবে বলে আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে জানানো হয়। পরে রাতে সাকিব গনভবনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তাকে খেলা চালিয়ে যাবার কথা বলে।

 

তবে এ বিষয়ে এখোনো কোন মন্তব্য করে নি সাকিব। সে শুধু নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন না বলে জানিয়েছেন।

 

নিউজ ঢাকা ২৪

আরো পড়ুন: ক্রাশ মাশরাফি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

অলিখিত ভাবে শারদীয় উৎসব নিষিদ্ধ করেছে বিএনপি: সাংসদ বকুল

সজিবুল হৃদয়: ‘বিএনপি -জামাত বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে অলিখিত ভাবে শারদীয় উৎসব নিষিদ্ধ করেছিলো। তারা রাজনৈতিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!