রাজবাড়ী

রাজবাড়ী তে নিরাপদ সড়ক ও শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় মানববন্ধন

রাজবাড়ী তে নিরাপদ সড়ক ও দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় চালকের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন কর্মসুচী ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া মডেল হাই স্কুলের সামনে সড়কে ওই মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করা হয়।
মানববন্ধন কর্মসুচীতে বক্তৃতা করেন, দৌলতদিয়া মডেল হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মন্ডল, প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম, প্রাক্তন শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান রুবেল, ইতি আক্তার প্রমুখ।

বক্তারা এ সময় বিদ্যালয়ের সামনে দুটি স্প্রিড ব্রেকারের দাবী জানান, এবং সড়ক নিরাপত্তা আইন কার্যকরেও দাবী জানান তারা।
উল্লেখ্য, শনিবার দুপুরে রাজবাড়ীর জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া মডেল হাই স্কুলের সামনে দ্রুত গতির একটি বাস চাপায় জাকিয়া আক্তার কেয়া ও চাদনী আক্তার নামে নবম শ্রেনীর দুই স্কুল শিক্ষার্থী নিহত হয়।

 

আরো পড়ুন:   বালিয়াকান্দিতে নারিকেল পারতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃর্ষে তরুনের মৃত্যু:

 

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে নারিকেল গাছ থেকে নারিকেল পাড়তে গিয়ে বিদ্যুতের তাড়ে জড়িয়ে মিরুল মোল্যা (১৪) নামে এক তরুনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের নারুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মিরুল মোল্যা বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের গাড়াকোলা গ্রামের হেলাল মোল্যার ছেলে।

নারুয়া গ্রামের বাসিন্ধা শেখ মহিদুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম খান জানান, রবিবার সকাল ৯টার দিকে নারুয়া গ্রামের আব্দুল মজিদ মুন্সির বাড়ীতে মিরুল মোল্যা নারিকেল গাছে নারিকেল পাড়তে ওঠে। নারিকেল পেরে নামার সময় নারিকেলের পাতা ধরলে পাতা বিদ্যুতের তারের উপর পড়ে। এসময় বিদ্যুৎস্পৃর্ষে চিৎকার করলে বিদ্যুৎ অফিসে ফোন দেওয়ার পর বিদ্যুৎ বন্ধ হলে মাটিতে পড়ে যায়। পরে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসককে খবর দিয়ে আনলে সে মৃত ঘোষনা করে। তার অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আরো পড়ুন : বালিয়াকান্দিতে দশ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ রবিবার সকালে অভিযান চালিয়ে দশ বছরের এক সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতের নাম, বাবুল আক্তার (৩০)। তার পিতার নাম, শামসুল হোসেন। বাড়ী উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের শামুকখোলা গ্রামে।

বালিয়াকান্দি থানার এস,আই হিরন কুমার বিশ্বাস জানান, থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম আজমল হুদার নির্দেশে জিআর ১২৪/১২ মামলায় উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের শামুকখোলা গ্রামের শামসুল হোসেনের ছেলে বাবুল আক্তারের দশ বছরের সশ্রম কারাদন্ড হয়। আদালতের রায়ের পর থেকেই সে গাঢাকা দেয়। রবিবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে শামুকখোলা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

রাজবাড়ি প্রতিনিধি।
নিউজ ঢাকা ২৪।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ময়মনসিংহের ত্রিশালে যে কারণে সন্তানের লাশ নিতে রাজি হননি পিতা

তাসনীমুল হাসান মুবিন,ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত আরাফাত হোসেনের (১৭) লাশ দাফন করতে নিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!