নারীর লাশ

১২ ঘন্টার ব্যবধানে বুড়িগঙ্গায় অজ্ঞাতনামা তিন লাশ উদ্ধার

১২ ঘন্টর ব্যবধানে বুড়িগঙ্গা নদী ও নদীর তীরবর্তি পৃথকস্থান থেকে অজ্ঞাতনামা পচাঁগলা ৩টি লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। পরে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ আমিরুল ইসলাম জানান, রবিবার দিবাগত রাত ১১টায় কামরাঙী চর গাজির ঘাট এলাকার স্থানীয় লোকজন বুড়িগঙ্গা নদীতে অজ্ঞাতনামা যুবক এর লাশ ভাসতে দেখে। পরে তারা কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে আমি রাত ১২টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে অজ্ঞাত নামা যুবক এর অর্ধগলিত লাশ ভাসতে দেখি। পরে ডোমের সাহয্যে লাশ টেনে তুলে নিয়ে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠাই। নিহতের পড়নে নীল রংয়ের জিন্স প্যান্ট ও কমলা রংয়ের ফুল হাতা শার্ট পরিহিতছিল। নিহতের বয়স আনুমানিক ২০ বছর হবে। লাশটি চার-পাঁচ দিন আগের হওয়ায় শরীরে পচঁন ধরে চামড়া উঠে যাচ্ছে। গতকাল সোমবার সকালে পুলিশ বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

অপরদিকে, দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার তেলঘাট এলাকা বরাবর বুড়িগঙ্গা নদীতে অজ্ঞাতনামা পুরুষ লাশ ভাসতে দেখেন এবং নদীর তীরবর্তী স্থানে অজ্ঞাতনামা যুবকের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়।
দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ খোরশেদ আলম জানান, কালিগঞ্জ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী খ্যাত কালিগঞ্জ গার্মেন্টপল্লী এলাকার লোকজন সোমবার সকালে তেলঘাট বরাবর বুড়িগঙ্গা নদীতে অজ্ঞাাত নামা পুরুষের লাশ ভাসতে দেখেন।

পরে তারা দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে আমি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে লাশটি পানি থেকে টানে তুলে নিয়ে আসি। লাশটি ছয়-সাত দিনের আগের হওয়ায় পচঁন ধরে শরীর দিয়ে পোকা বের হয়ে আসছে। লাশের ডান হাতের মাসলের অংশে কাটা জখম রয়েছে এবং পেট দিয়ে নারীভুরি বের হয়ে আসছে । নিহতের বয়স আনুমানিক ৫০ বছর হবে। নিহতের পড়নে মহিলাদের একটি সেলোয়ার রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে সন্ত্রাসীরা অজ্ঞাত পুরুষটিকে হত্যার পর লাশ গুম করার উদ্যোশে পেট কেটে নদীর পানিতে ডুবিয়ে দেয়।
উপ-পরিদর্শক আরো জানান, বুড়িগঙ্গা নদী থেকে অজ্ঞাত লাশ টানে তোলার পর বেলা ১২টার সময় একই এলাকার ঢালী মার্কেটের সামনে টংয়ের চায়ের দোকানের পাশে অজ্ঞাত যুবকের লাশ পড়ে থাকার কথা জানতে পারি। পরে সেখানে গিয়েও লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করি। নিহতের বয়ষ আনুমানিক ৩৫ বছর হবে। নিহতের শরীরে কোন প্রকার আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। পড়নে চেক লুঙ্গি ও চেক শার্ট পরিহিতছিল।

স্থানীয়দের সাথে কথা বললে কেউ কিছু বলতে পারেনি এবং যুবকটিকে কেউ চিনে না বলেও জানান। পড়ে লাশের ময়না তদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। ধারনা করা হচ্ছে অজ্ঞাতনামা যুবকটি অন্য যে কোন জায়গা থেকে ঘটনাস্থলে এসে ষ্টোক করে মারা যেতে পারে।

ময়না তদন্ত রিপোর্ট আসলে বা তার পরিচয় পাওয়া গেলে মৃত্যুর রহস্য জানতে পারবো।

এ ব্যাপারে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ শাহজামান জানান, কালিগঞ্জ তেলঘাট এলাকার পৃথকস্থান থেকে সোমবার দু’টি অজ্ঞাতনামা লাশ উদ্ধার করা হয়। একটি বুড়িগঙ্গা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় পচাঁগলা লাশ অপরটি একই এলাকার একটি টংয়ের চায়ের দোকানের পাশ থেকে। দুটি লাশেরই ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অজ্ঞাত তিন লাশের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এ.এইচ.এম সাগর।

নিউজ ঢাকা ২৪।

 

আরো পড়ুন: পুলিশের ডি.আই.জি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

নকলায় সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

রাইসুল ইসলাম রিফাত (শেরপুর প্রতিনিধি): শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় কর্মরত তরুণ সাংবাদিকদের পেশাদারিত্বে দক্ষতা অর্জনের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!