ফানবাজ

আগ্রহীদের নিয়ে কাজ করতে চায় ফানবাজ

একটি মজার ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে চাইলে তার নামটিও নিশ্চয় মজার হওয়া চাই? সেখান থেকেই ভাবনা শুরো আর সব ভাবনা শেষে ‘ফানবাজ’ নামের উৎপত্তি। যার আক্ষরিক অর্থ ‘মজার গুঞ্জন’।
ফানবাজ বাংলাদেশের এক অন্যতম জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের নাম।

মাত্র দুই বছর না পেরুতেই ইউটিউব চ্যানেল ‘ফানবাজ’ পেয়েছে দর্শকদের নিরন্তর ভালবাসা। বর্তমানে এই চ্যানেলে মোট ৮০ টির ও বেশি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে । আর সাবস্ক্রাইবার’স হয়েছে প্রায় ১ লক্ষ ৪৬ হাজারেরও বেশি আর এরি মাজে গত ১২ই আগস্ট ২০১৮ রোজ রবিবার, ‘সিলভার প্লে বাটন’ হাতে পান টিম ‘Fun Buzz’। এই চ্যানেলে প্রায় সকল ভিডিওতেই প্র‍্যাংকের পাশাপাশি সামাজিক সচেতনতা মূলক এবং শিক্ষনীয় কিছু বার্তা দর্শকদের মাঝে পৌঁছানোর চেষ্টা করা হয়ে থাকে।

ইউটিউব চ্যানেল ‘ফানবাজ’ প্রসঙ্গে এই চ্যানেলের সিইও নাহিদ পারভেজ খান বলেন, অতি অল্প সময়ে এমন সফলতায় আমরা অনেক আনন্দিত।আমরা সকলের ভালোবাসা প্রত্যাশি।আমাদের পথ চলায় সকলের সহযোগিতা চাই।
(নাহিদ পারভেজ খান তিনি পেশায় একজন ফ্রীল্যান্সার)। চ্যানেলের ভিডিও এডিটিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ফিল্ম মেকিংয়ের কাজ তিনিই করে থাকেন।

চ্যানেলের সদস্য সম্পকে জানতে চাইলে চ্যানেলের সিইও নাহিদ পারভেজ খান আরো বলেন আমরা সাধারন্ত আগ্রহীদের নিয়েই কাজ করতে চাই। প্রথমত আমরা ১২ জন কাজ করার আগ্রহীদের নিয়ে ২০শে জুলাই ২০১৬ সালে এই চ্যানেলের যাত্রা শুরু করি। ১২ জন নিয়ে এই চ্যানেলের যাত্রা শুরু হলেও বর্তমানে ৭ জন সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন৷

তারা হলেন :
১. নাহিদ পারভেজ খান (ফাউন্ডার, ডিরেক্টর এবং সিইও)
২. আনোয়ারুল আজিম শামিম (কো ফাউন্ডার এবং এডভাইজার’), পেশায় তিনি একজন ডেন্টাল সার্জন।
৩. আশিক খান চৌধুরী (কো ফাউন্ডার), তিনি অভিনয় পরিচালনা করে থাকেন।
৪. জসিম উদ্দিন, তিনি একজন চাকরীজীবি।
৫. ফজলে রাব্বী ৬. ফাহিম উল আলম এবং ৭. আরাফাত আহসান (এরা পেশায় ছাত্র) ।

এই টিমের বিশেষত হলো টিমের যে কোন গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্তই চ্যানেলের পরিচালক ও চ্যানেলের সদস্য দের মাধ্যমেই বাস্তবায়িত হয়। নাহিদ পারভেজ খান ও আনোয়ারুল আজিম শামীম মূলত এই দুই জন যাদের অনন্য অবদানে কারণে “ফানবাজ” টিম আজও ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে শুনাম আর্জন করে যাচ্ছে।

ইফরান নেওয়াজ,নিউজ ঢাকা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বাবু খাইছো: সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল এই গান

“তরুণদের অনেকেই আজকাল তাদের প্রিয়জন, মানে গার্লফ্রেন্ড বা বয়ফ্রেন্ডকে ‘বাবু’ বলে সম্বোধন করে। এর উৎপত্তি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!