কাপাসিয়া

কাপাসিয়া য় ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে মিলন মেলা

গাজীপুরের কাপাসিয়া য় পেশাজীবী কল্যাণ পরিষদ, রাওনাটে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান হয়েছে।

দেশ-বিদেশে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিতরা ছুটে আসেন এই ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে। আর এতে অনুষ্ঠানটি এক মিলন মেলায় পরিনত হয়ে উঠে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. জয়নাল আবেদীন মোল্লা। উদ্বোধক ছিলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিকলীগ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় শ্রমিকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি মো. হাবিবুর রহমান আকন্দ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার ও ঢাকাস্থ গাজীপুর সাংবাদিক ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ্, দুর্গাপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম এ গাফ্ফার,
জানা গেছে, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও এক ঝাকঝমপূর্ণ ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান করে পেশাজীবী কল্যাণ পরিষদ।

অনুষ্ঠান শেষের দিকে এক রেফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়। রেফেল ড্র এ দুই শতাধিক পুরস্কারের ব্যবস্থা ছিলো।
অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন আকন্দ ও সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বেপারী।

আরো পড়ুন: কেরানীগঞ্জে বিতরন করা হচ্ছে স্মার্ট আইডি কার্ড

 

কেরানীগঞ্জে স্মার্ট ন্যাশনাল আইডি কার্ড বিতরন প্রক্রিয়া সফল ভাবে সম্পন্ন করা হচ্ছে।  কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই স্মার্ট কার্ড দেয়া হচ্ছে এমনটাই বললেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার জনাব মো: জাকির মাহমুদ।

আজ সোমবার উপজেলার আগানগর ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরন কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে তিনি বলেন, আপাতত আগানগর এবং শুভাড্যা ইউনিয়নে বর্তমানে বিতরন করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে কোন্ডা এবং তেঘরিয়া ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরন শেষ হয়ে গেছে। ২৬ সেপ্টেম্বর উপজেলার জিনজিরা ইউনিয়নে স্মার্ট আইডি কার্ড বিতরন করা হবে। এভাবে পর্যায়ক্রমে বাকি ই্‌উনিয়ন গুলোতে বিতরন করা হবে।

নির্বাচনের আগে সব গুলা ইউনিয়নের স্মার্ট কার্ড বিতরন শেষ হবে না বলে যানান তিনি। নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা হয়ে গেলে স্মার্ট কার্ড বিতরন বন্ধ থাকবে । নির্বাচন শেষ হলে পরবর্তীতে বাকি ইউনিয়নের স্মার্ট কার্ড গুলো বিতরন করা হবে। নির্বাচনের আগে ৫টি ইউনিয়নে বিতরন করা হবে। এবং নির্বাচনের পরে বাকি ইউনিয়ন গুলো দেয়া হবে।

স্মার্ট আইডি কার্ড

অনেকেই অভিযোগ করছে ভিতর থেকে তাদের বলা হয়েছে কার্ড প্রিন্ট হয় নি বা আসেনি এরকম প্রশ্নের উত্তরে  মো: জাকির মাহমুদ বলেন, এ ধরনের সংখ্যা খুবি অল্প। যাদের স্থায়ী ঠিকানা অসম্পূর্ন ছিলো , ভোটার নিবন্ধন ফর্মে কিছু ঘর খালি ছিলো , কম্পিউটার সিস্টেমের কারনে তাদের স্মার্ট কার্ড প্রিন্ট করা হয় নি। তাদের কে আলাদা ভাবে রেজিষ্টার করে, আলাদা ফর্ম ফিলাপ করিয়ে নেয়া হচ্ছে, কম্পিউটার সিস্টেমে উনাদের স্থায়ী ঠিকানা আপলোড হয়ে গেলে পরবর্তীতে উপজেলা অফিস থেকে তাদের কার্ড সংগ্রহ করা যাবে।

স্মার্ট কার্ড বিতরনের প্রক্রিয়া নিয়ে  জাকির মাহমুদ বলেন, স্মার্ট কার্ড বিতরনের তিনটি ধাপ রয়েছে। প্রথম ধাপে তাকে লাইনে দাড়িয়ে একটি টোকেন সংগ্রহ করতে হয় যে তার কার্ডটি কোন কমপাটমেন্টে রয়েছে, পরবর্তী ধাপে তাকে ১০ আঙুলের ছাপ এবং চোখের আইরিশের ছাপ দিতে হয়। পরবর্তী ধাপে তাকে তার নির্দিষ্ট কমপার্টমেন্ট থেকে কার্ড সংগ্রহ করে পুরাতন কার্ডটি জমা দিয়ে দিতে হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

গাইবান্ধায় ১ টাকার বাজার সহায়তা কার্যক্রম 

  মো:শামসুর রহমান হৃদয়,গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃএকদল শিক্ষার্থীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় গড়েউঠা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আমাদের গাইবান্ধা এর সহযোগিতায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!