ডিবি

কেরানীগঞ্জে ডিবি পুলিশের সাথে কথিত বন্দুক যুদ্ধে কুখ্যাত মাদক সন্ত্রাসী নিহত ॥ নিউজ ঢাকা

ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার

কেরানীগঞ্জ-দোহার-নবাবগঞ্জ সড়কের দেওসুর এলাকায় ঢাকা জেলা দক্ষিন গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাথে কথিত বন্দুক যুদ্ধে কুখ্যাত মাদক সন্ত্রাসী হত্যা,খুন, অপহরন, ডাকাতি, বিস্ফোরক মামলাসহ প্রায় দুই ডর্জন মামলার পলাতক আসামী নুর হোসেন ওরফে নুরা (৩৬) নিহত হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে। নিহত সন্ত্রাসী নুরার গ্রামের বাড়ি কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধিন শাক্তা ইউনিয়নের জিয়ানগর এলাকায়। তার পিতার নাম মৃতঃ মোঃ নুর ইসলাম। এই ঘটনায় ডিবি পুলিশের ছয় সদস্য আহত হয়েছে। আহতরা হচ্ছে ঃ এস আই বিপুল চন্দ্র দাস, এ এস আই জাহিদুল ইসলাম, কনস্টেবল রানা, মিঠুন, সবুজ ও আলী নুর । আহতদের মধ্যে কনস্টেবল রানাকে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বাকীদের মিটফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
ঢাকা জেলা দক্ষিন ডিবি পুলিশ সাংবাদিকদের প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানান, কুখ্যাত ডাকাত অস্ত্রধারী খুনী ও মাদক সন্ত্রাস দুই ডর্জন মামলার পলাতক আসামী মোঃ নুর হোসেন নুরাকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুন্সীগঞ্জের সিরাজ-দি-খান থানাধিন ডাকাতিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা জেলা ডিবি কার্যালয় কেরানীগঞ্জের কদমতলীতে নিয়ে আসা হয়। পরে গ্রেপ্তারকৃত নুর হোসেনের স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাত ৩টার সময় তাকে নিয়ে কেরানীগঞ্জের মডেল থানাধিন জিয়ানগর এলাকায় অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারের জন্য বের হয়ে জিনজিরা-দোহার-নবাবগঞ্জ সড়কের দেওসুর এলাকায় জনৈক মনির হাজীর বালুর মাঠে পৌছলে সেখানে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা নুর হোসেনের সহযোগিরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ করে গুলি করতে থাকে।

পুলিশও আত্বরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। এসময় সন্ত্রাসীদের সাথে পুলিশের প্রায় আধঘন্টা গুলি বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে গ্রেপ্তার হওয়া আসামী মাদক সন্ত্রাস নুর হোসেন নুরা পালানোর চেষ্টা করলে তখন অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীদের গুলিতে সে ও ডিবি পুলিশের ছয় সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়। তাৎক্ষনিকভাবে তাদের উদ্ধার কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের সহায়তায় স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক নুরাকে মৃত ঘোষনা করেন এবং আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা প্রদান করেন।

নিহত নুর হোসেন নুরার নামে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় ডাকাতি, খুন, অপহরন, অস্ত্র,বিস্ফোরক, মাদক ও বিশেষ ক্ষমতাসহ দুই ডর্জন মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে গোয়েন্দা পুলিশ একটি ওয়ান সুটার গান,তিন রাউন্ড গুলি ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে।
কেরানীগঞ্জ মডেল থানার শাক্তা ইউনিয়নের জিয়ানগর এলাকায় গতকাল বুধবার সকালে কুখ্যাত মাদক সন্ত্রাস নুর হোসেন নুরার বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার খবর পৌছলে স্থানীয় সাধারন জনগনের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসে। তারা এলাকার মধ্যে দফায় দফায় মিছিল করতে থাকে এবং মিষ্ঠি বিতরন করতে থাকে।
জিয়া নগর এলাকার বাসিন্দা রহমান আলীর সাথে কথা হলে তিনি স্বঃস্তীর নিঃস্বাস ফেলে বলেন, বাবারে নুরা মারা গেছে আপাতত এলাকাটি একটু ঠান্ডা থাকবে। তবে নুরার আরেক ভাই রয়েছে আলী হোসেন। সেও যদি মারা যেত তাহলে এই এলাকাটি পুরোপুরি ঠান্ডা হয়ে যেতো। মানুষের মৃত্যুর খবর পেলে সবাই ইন্না লিল্লাহে পড়েন। আল্লাহর দরবারে দোয়া করেন। আপনারা এলাকাটিতে ঘুরে দেখেন নুরার মৃত্যুর খবর শুনে সবাই গালি দিচ্ছে।

এরা দুই ভাই এলাকাটিতে রাম রাজত্ব বানিয়ে যা ইচ্ছে তাই করে যাচ্ছিল। তাদের রয়েছে একটি বাহিনী। এ বাহিনী এলাকায় এমন কোন কাজ নাই তারা না করেন। সন্ধ্যার পর নেমে আসতো তাদের রাজত্ব। এ এলাকা দিয়ে চলাচলরত গাড়ীতে প্রতিদিন ডাকাতি-ছিনতাই, তাদের ভয়ে এলাকার কোন যুবতী মেয়ে একা বেড় হতে পাড়তো না, এলাকায় তাদের রয়েছে মাদকের বিশাল স্পট,খুনি ও কিলার। তাদের বিরুদ্ধে পুলিশকে সাথে নিয়ে এলাকাবাসি আন্দোলন করলে তারা আত্মগোপনে চলে যায়। মাঝে মধ্যে রাতের আধারে দলবল নিয়ে এসে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে চলে যায়। আর এদের সেল্টার দিচ্ছে সয়ং তার মা- ও বোন কোহিনুর।

এ ব্যাপারে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ সাদিকুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমি বুধবার সকালে মিটফোর্ড হাসপাতালে গিয়ে নিহত মাদক সন্ত্রাসী নুরার সুরতাহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠাই। নিহতের বাম কানের নীচে, গলায় কন্ঠনালীতে ও বুকের বাম পাশে গুলিবিদ্ধছিল। এ ঘটনায় ঢাকা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এ আই বিপুল চন্দ্র দাস বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় হত্যা ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুটি মামলাদায়ের করেছে।

এ এইচ এম সাগর,

নিউজ ঢাকা ২৪।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বইমেলার পর্দা নামলো আজ

বইমেলার পর্দা নামলো আজ , তবে শেষ দিনেও আশা পূরণ হয়নি প্রকাশকদের শিপংকর শীল: প্রকাশনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!