ভুয়া পুলিশ

কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া বিআরটিএ অফিস থেকে দুই ভুয়া পুলিশ আটক

ভুয়া পুলিশ সেজে ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষা দিতে এসে আটক হয়ে শ্রীঘরে গেলেন দুই ব্যাক্তি। আটককৃত দুই ব্যাক্তি হচ্ছে :  ঢাকা জেলা ধামরাই থানার বালিয়া গ্রামের মোজাহার আলী খান মজলিসের ছেলে নাঈম আলী খান (৪৫) ও একই থানার চোহাট গ্রামের মোঃ মান্নান মিয়ার ছেলে মোঃ আইয়ুর মিয়া (৪৭)।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার সকালে কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) অফিসের ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষার হলে। পরে আটককৃতদের বিআরটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাখাওয়াত হোসেন এর আদালতে হাজির করা হলে , তিনি আটককৃত দুই ভুয়া পুলিশের জবানবন্দীতে দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া বিআরটিএ অফিসের ঢাকা জেলার সহকারী পরিচালক মোঃ রাফিক আল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার সকালে ইকুরিয়া বিআরটিএ অফিসে ড্রাইভিং লাইসেন্স এর পরীক্ষা চলছিল। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে দুইজন পরিক্ষার্থী পুলিশের পোষাক পড়ে নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে পরীক্ষার হলে বাড়তি সুযোগ সুবিধা গ্রহন করার জন্য পায়তারা করছে।

এসময় তাদের আচার আচরন দেখে আমাদের সন্দেহ হয়। ওই দুই পুলিশকে লিখিত পরিক্ষার পর তাদের ডেকে পুলিশের পরিচয়পত্র দেখাতে বললে তারা পরিচয়পত্র দেখাতে পারেন নাই। বরং তারা আমাদের সাথে উচ্চ বাচ্চ শুরু করেন, তখন আমরা তাদের পুলিশের কাছে তুলে দেওয়ার হুমকী দিলে তারা জানান, তারা ড্রাইভিং লাইসেন্স পরিক্ষার্থী। পুলিশের পোষাক পড়ে এসেছে যাতে পরীক্ষার মধ্যে তাদের পুলিশ ভেবে সুযোগ সুবিধা দেওয়া হয়।

এরপর উপস্থিত পরীক্ষা নিতে আসা বিআরটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রে শাখাওয়া হোসেন এর আদালতে নিয়ে গেলে তিনি মোবাইল কোর্ট বসিয়ে আটককৃতদের বিরুদ্ধে দুই মাসের সাজা প্রদান করেন। এরপর দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাদের কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ মনির হোসেন পিপিএম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে খবর পেয়ে কয়েকজন ফোর্সসহ আমার একজন এস আইকে ইকুরিয়া বিআরটিএ অফিসে পাঠাই। তারা সেখানে গিয়ে আটককৃতদের বিভিন্নভাবে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে জানতে পারে এরা আসল পুলিশ না নকল পুলিশ।  পোষাকের কথা জিজ্ঞাসা করলে আটককৃতরা জানান তার এক বন্ধুর মাধ্যমে এ পোষাক সংগ্রহ করেছে। পরে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সাজা প্রদান করা হয়।

বিআরটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শাখাওয়াত হোসেন বলেন, আটককৃত দুই ব্যাক্তি ড্রাইভিং লাইসেন্স পরিক্ষার্থী ছিলেন। তারা পরীক্ষায় বাড়তি সুযোগ সুবিধা পাওয়ার জন্য এ ভুয়া পুলিশের ছদ্মবেশ ধারন করছে। আটককৃতরা এ সব কথা স্বীকার করায় তাদের বিরুদ্ধে দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

এ এইচ এম সাগর।

নিউজ ঢাকা ২৪

আরো পড়ুন: কেরানীগঞ্জে জমি দখলদারদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

২৩ নভেম্বর রাজাপুর হানাদার মুক্ত দিবস

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ২৩ নভেম্বর ১৯৭১ রাজাপুর মুক্ত দিবস। পশ্চিম পাকিস্তানের …

13 comments

  1. I do accept as true with all of the ideas you have
    introduced on your post. They are very convincing and can definitely work.
    Still, the posts are too short for novices. May just you please extend them a little from next time?
    Thank you for the post.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!