মা

মা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ উপহার’ তাজিনের শেষ স্ট্যাটাস

জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদের ফেসবুকে শেষ স্ট্যাটাস ছিল মা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ উপহার।

গত বছরের ১৭ এপ্রিল এ ধরনের একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন তিনি। পরবর্তী সময়ে ফেসবুকে নিজের বিভিন্ন ছবি শেয়ার করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে উত্তরার একটি হাসপাতালে নিভে গেছে অভিনেত্রী তাজিনের জীবনপ্রদীপ।

এর আগে দীর্ঘদিন ধরেই খবরের আড়ালে ছিলেন তিনি। কিন্তু এবার খবরের শিরোনাম হলেন প্রস্থানের খবর নিয়ে। তার হাসিমাখা মুখটি আর দেখতে পাবেন না সহকর্মীরা।

দুপুরের দিকে হার্ট অ্যাটাক করে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এ অভিনেত্রী। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় আইসিইউতে ভর্তি করা হয় তাকে।

জানা গেছে যখন তাজিনের হার্ট অ্যাটাক হয় তখন বাসায় কেবলমাত্র একজন মেকাপ আর্টিস্ট ছিলেন। উনি তাজিনের সঙ্গেই থাকতেন। তিনিই তাজিনকে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে নিয়ে যান।

অভিনয়ের পাশাপাশি মডেলিংয়েও সুনাম অর্জন করেছেন তিনি। খুব ভালো তাজিন আহমেদের লেখার হাতও। অনেক দিন যুক্ত ছিলেন সাংবাদিকতার সঙ্গে।

ঢাকার ইডেন কলেজ থেকে পড়াশোনা করেছেন তাজিন আহমেদ। দিলারা ডলি রচিত ও শেখ নিয়ামত আলী পরিচালিত ‘শেষ দেখা শেষ নয়’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তাজিন আহমেদের অভিনয়যাত্রা শুরু হয়েছিল।

নাটকটি ১৯৯৬ সালে বিটিভিতে প্রচার হয়েছিল। এরপর তিনি অসংখ্য নাটক-টেলিছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। তিনি দীর্ঘদিন থিয়েটারে অভিনয় করেছেন।

সুত্রঃযুগান্তর

 

আরো পড়ুন: চা পাতার ব্যবহার

 

এক কাপ ধূমায়িত চা আমাদের শুধু চাঙাই করে না, সেই সঙ্গে এর রয়েছে ব্যতিক্রমী কয়েকটি ব্যবহার। শরীরের ক্লান্তি দূর করতে বহুকাল আগে থেকেই চায়ের ব্যবহার শুরু করেছে মানুষ। জেনে নিন সেগুলো:

গাছের সার

চা তৈরি শেষে পাতা বা ‘টি ব্যাগ’ ফেলে দেবেন না কখনো। ব্যবহার করা চায়ের পাতা গাছের গোড়ায় মাটির সঙ্গে মেশান, তাহলে সেই গাছের আর অন্য কোনো সারের প্রয়োজনই হবে না। আর ৩-৪টি ভেজা টি ব্যাগ যদি গাছের গোড়ায় রেখে দেন, তাহলে তা যে শুধু সারের প্রয়োজন মেটাবে তা নয়, গাছে পানিও দিতে হবে কম।

কাপড় রং

সাদা রঙের সুতি, সিল্ক বা উলের কাপড়ে রং করতে চান? তাহলে প্রথমেই চা পাতা পছন্দ করে নিন। কালো চা দিয়ে কাপড় হবে বাদামি রংয়ের। আর লাল জবা ফুলের চায়ে কাপড়ে আসবে লালচে ভাব। পছন্দমতো রংয়ের গরম চা’তে ১৫ মিনিট ধরে কাপড় ভিজিয়ে রাখুন, দেখবেন কী সুন্দর রং বদলে গেছে। এই রং হবে একেবারে স্থায়ী। শুধু মনে রাখতে হবে, ১০০ গ্রাম কাপড়ের জন্য ২৫ গ্রাম চায়ের পাতা প্রয়োজন।

জুতার দুর্গন্ধ দূর

চা তৈরির পর টি ব্যাগ শুকিয়ে নিয়ে জুতার ভেতরে রেখে দিন। চা জুতার দুর্গন্ধ শুষে নেবে। আর যদি পুদিনা পাতার চা হয়, তাহলে তো কথাই নেই! পুদিনার মিষ্টি গন্ধ বের হবে আপনার জুতা থেকে।

কার্পেট পরিষ্কার

প্রথমে কার্পেটের ওপর কয়েক চামচ গুড়ো চা পাতা ছড়িয়ে দিন। এরপর কার্পেটটি ভ্যাকুয়াম ক্লিনার দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলুন। দেখবেন, কার্পেটটি শুধু পরিষ্কারই হয়নি, সেটি থেকে মিষ্টি গন্ধও ছড়াচ্ছে। ……. বিস্তারিত পড়তে ক্লিক করুন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

আসছে মহিন চৌধুরীর পরিচালনায় বিয়ে করবো

মোঃ এনামুল হক বাবু: তরুণ প্রজন্মের নির্মাতা মহিন চৌধুরী মিউজিক ভিডিও হতে শুরু করে টেলিভিশন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!