লায়ন মুহা. মীযানুর রহমান

নেপাল-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এওয়ার্ড পেলেন লায়ন মুহা. মীযানুর রহমান

নেপাল-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এওয়ার্ড’ পেয়েছেন কবি, কলাম লেখক ও সাংবাদিক লায়ন মুহা. মীযানুর রহমান। নেপালের কাঠমন্ডুতে ইন্টারন্যাশনাল ট্রান্সকিয়েশন সোসাইটি এ সম্মাননা প্রদান করে।

সংগঠনের মহাসচিব মহাসচিব রিসাবদেব ঘিমেরের সভাপতিত্বে নেপাল-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ সেমিনার ও ইন্টারন্যাশনাল ফ্রেন্ডশীপ এওয়ার্ড-২০১৮ প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নেপালের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী, বিশিষ্ঠ গবেষক এবং সাহিত্যকার মোদনাথ প্রসিত। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ঠ সাহিত্যকার মায়া ঠাকুরী, ধন খাতিউরা এমপি, নেপাল সাংস্কৃতিক সংস্থার চেয়ারম্যান রাজেস খান্না, নেপাল একাডেমীর সদস্য মাতৃকা পোঘারেলা, ভারতের আসাম থেকে আগত সাহিত্যকার ও গবেষক কৃষ্ণ ভ‚জেল।

বাংলাদেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের শিক্ষক কর্মচারী ট্রাস্ট এর অধ্যক্ষ শাহজাহান আলী সাজু। আনুষ্ঠানিক সমন্বয়ক ছিলেন ইমদাদুল হক তৈয়ব (বাংলাদেশ) ও শুভাদ্রা ভট্টারায় (নেপাল)।

পুরস্কার প্রপ্তিতে আনন্দ প্রকাশ করে লায়ন মুহা. মীযানুর রহমান বলেন, এই সম্মাননা আমার সমাজের প্রতি, দেশের প্রতি দায়ভার বাড়িয়ে দিয়েছে। আমি চেষ্টা করবো এই সম্মাননার সম্মান রক্ষা করতে। আমার কাজের ক্ষেত্রে এ সম্মাননা অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।

উল্লেখ্য লায়ন মুহা. মীযানুর রহমান ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক আমার সময় এর নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার লেখা কাব্যগ্রন্থ ‘উচ্চবিলাসী দুঃখ’ ও ‘প্রবন্ধ গ্রন্থ ‘প্রথম কলাম’ পাঠকদের মাঝে প্রসংশিত হয়েছে। এছাড়া তিনি দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে যুক্ত আছেন।

 

 

 

আরো পড়ুন: চা পাতার ব্যবহার।

এক কাপ ধূমায়িত চা আমাদের শুধু চাঙাই করে না, সেই সঙ্গে এর রয়েছে ব্যতিক্রমী কয়েকটি ব্যবহার। শরীরের ক্লান্তি দূর করতে বহুকাল আগে থেকেই চায়ের ব্যবহার শুরু করেছে মানুষ। জেনে নিন সেগুলো:

গাছের সার

চা তৈরি শেষে পাতা বা ‘টি ব্যাগ’ ফেলে দেবেন না কখনো। ব্যবহার করা চায়ের পাতা গাছের গোড়ায় মাটির সঙ্গে মেশান, তাহলে সেই গাছের আর অন্য কোনো সারের প্রয়োজনই হবে না। আর ৩-৪টি ভেজা টি ব্যাগ যদি গাছের গোড়ায় রেখে দেন, তাহলে তা যে শুধু সারের প্রয়োজন মেটাবে তা নয়, গাছে পানিও দিতে হবে কম।

কাপড় রং

সাদা রঙের সুতি, সিল্ক বা উলের কাপড়ে রং করতে চান? তাহলে প্রথমেই চা পাতা পছন্দ করে নিন। কালো চা দিয়ে কাপড় হবে বাদামি রংয়ের। আর লাল জবা ফুলের চায়ে কাপড়ে আসবে লালচে ভাব। পছন্দমতো রংয়ের গরম চা’তে ১৫ মিনিট ধরে কাপড় ভিজিয়ে রাখুন, দেখবেন কী সুন্দর রং বদলে গেছে। এই রং হবে একেবারে স্থায়ী। শুধু মনে রাখতে হবে, ১০০ গ্রাম কাপড়ের জন্য ২৫ গ্রাম চায়ের পাতা প্রয়োজন।

জুতার দুর্গন্ধ দূর

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে বাঙ্গালি জাতির ভাগ্যকে হত্যা করা হয়েছে – শাহীন আহমেদ

 ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান,বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!