ঈদ উপলক্ষে প্রতারক চক্র সক্রিয় কেরানীগঞ্জে তিতাস গ্যাস অফিসার পরিচয় দিয়ে গ্রাহকদের সাথে প্রতারনা

গতকাল বুধবার বিকেলে তিতাস গ্যাস কেরানীগঞ্জ জোনাল অফিসে গিয়ে দেখা যায় স্বামী হারা ৫০ বছর বয়সি এক বৃদ্ধা মহিলা কান্না করছেন। তার এ কান্নার রহস্য জানতে গিয়ে জানাযায়, এক শ্রেনীর প্রতারক কেরানীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে নিজেদের তিতাস গ্যাস অফিসার পরিচয় দিয়ে গ্যাসের বিল বই দেখতে চান। বিল বই দেখে প্রতারচক্র গ্রহকদের জানায় আপনার বিল বকেয়া আছে। আমরা বিল নিতে এসেছি না হয় লাইন কেটে দিয়ে যাবো। সাধারন গ্রাহকরা তাদের এ প্রতারনার ফাঁদে পড়ে গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন হওয়ার ভয়ে প্রতারকদের কাছে বিল দেন। প্রতারকরা বিল নিয়ে বিল বইয়ের মধ্যে নকল সিল ও স্বক্ষর করে টাকা নিয়ে চম্পট দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনই প্রতারকের ক্ষপরে পড়ে ওই বৃদ্ধ মহিলা তার কস্টে অর্জিত ১৬শত টাকা খুয়িছেন বলে কান্না করছে।
ক্ষতিগ্রস্ত ওই বৃদ্ধা মহিলার নাম মানু বেগম। তিনি বলেন, তিনি স্বামী হারা একজন বৃদ্ধা । সে মানুষের দোকানে দোকানে মালিক-কর্মচারীদের বাসা থেকে দুপুরের খাবার নিয়ে দেন। এর বিনিময়ে সে যা পায় তা দিয়ে কোন রকম এক বেলা খেয়ে পড়ে বেঁচে আছে। গতকাল বুধবার দুপুরে দুই প্রতারক এসে তার গ্যাস বিল বই দেখতে চায়। সে সরল মনে তাদের কাছে গ্যাস বিল বই দেখান। পরে তারা জানান আপনারতো চলতি মাসসহ দুই মাসের বিল বকেয়া রয়েছে আপনি এখন বিল না দিলে আমরা গ্যাস লাইন কেটে দিবো। এ কথা শুনে মানু বেগম পাশের বাড়ি থেকে ধার করে ১৬শ টাকা এনে দেন। পরে প্রতারক চক্রটি তার বিল বইয়ের মধ্যে একটি সিল ও সাক্ষর করে চলে যায়। এরপর মানু বেগম তার বিল বইয়ের মধ্যে আগের পাতায় থাকা সিলের সাথে বর্তমান সিল না মিললে পাশের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে দেখান। সেখানে গিয়ে জানতে পারে সিলটি নকল। সাথে সাথে মানু বেগম কেরানীগঞ্জ তিতাস গ্যাস অফিসে গিয়ে বিষয়টি জানালে তখন জানতে পারে সে প্রতারনার স্বককার হয়েছে।

তিতাস গ্যাস ঠিকাদার সমিতির কেরানীগঞ্জ শাখার সভাপতি মোঃ হাজি শাহআলম জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার আমরা এ প্রতারকের খবর পেয়ে জিনজিরা হুক্কাপট্রি এলাকায় অভিযান চালাই। অভিযানে খবর পেয়ে প্রতারক চক্রটি তাদের একটি ডায়রী,আইডি কার্ড, ফাইল ও গ্যাস লাইন বিচ্ছিন করার জন্য দুটি সেলাই রেঞ্জ ও একটি রেগুলেটর ফেলে পালিয়ে যায়। প্রতারক চক্রটি শুভাঢ্যা ইউনিয়ন থেকে আমির হোসেন এর কাছ থেকে ৮ হাজার ও সাবান মিয়ার কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা ও জিনজিরা মান্দাইল এলাকা থেকে মঙ্গলবার সুভ নামের একজনের কাছ ৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার সংবাদও আমরা পেয়েছি।
এ ব্যাপারে কেরানীগঞ্জ তিতাস গ্যাস সহকারী প্রোকৌলী মোঃ আজগর আলী জানান, গত কয়েকদিন ধরে এ ধরনের প্রতারনা খবর পাওয়া যাচ্ছে। একটি চক্র কখনো আব্দুর রশীদ আবার কখনো আব্দুর রহীম নামে তিতাস গ্যাস অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রতারনা করে আসছে। এ বিষয়ে আমি বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়রী করেছি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কেরানীগঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি; তিনদিনেও ঘটনাস্থলে যায় নি পুলিশ

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ১০৮ নং পারজোয়ার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার ১০ জানুয়ারী দিবাগত …

error: Content is protected !!