বাঁকড়া থেকে ঢাবিতে চান্স পেলো জিপিএ-৪.৪২ প্রাপ্ত খাদিজা

ডেস্ক রিপোর্ট: মেধা ও চেষ্টা মানুষকে উচ্চশিখরে পৌঁছে দেয়।হাজার বাধাবিপত্তি সামনে আসলেও সবকিছু জয় করা যায় যদি থাকে পরিশ্রম আর সৎ সাহস। ঠিক তেমনি অন্যতম একজনের নাম খাদিজা খাতুন যিনি বাঁকড়া কলেজের জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের পিছনে রেখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) মানবিক শাখায় ১৯৫৩ ম্যারিটে এ বছর চান্স পেয়েছেন।

তবে খাদিজা শুধু ঢাবিতে নয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহেও চান্স পেয়েছে। কোনো বাধা তার স্বপ্নকে ভঙ্গ করতে পারেনি।

খাদিজা বিশ্বাস করেন জিপিএ দিয়ে একজন শিক্ষার্থীকে মেধার মূল্যায়ন করতে পারেনা।বরং সফল হতে লাগে নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস, সৎ সাহস, সর্বোচ্চ চেষ্টা, ধৈর্য আর অধ্যবসায়।

আজ বেলা ১২টা ৩০ মিনিটের পর ‘খ’ ইউনিটের রেজাল্ট প্রকাশের মধ্য দিয়ে খাদিজার রেজাল্ট দেখে নিশ্চিত হন।

খাদিজা বাঁকড়া জে.কে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মানবিক থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৪.০৬ ও বাঁকড়া ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি-তে জিপিএ -৪.৪২ পেয়ে উত্তীর্ণ।অথচ বাঁকড়া কলেজ থেকে মানবিক শাখায় ২০২০ সালের এইচএসসিতে (অটোপাশের) জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৪ জন।কিন্তু মানবিক শাখা থেকে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কেউ এখনো পর্যন্ত কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাইনি বলে জানা যায়।

খাদিজা বিষ্ণুপুর গ্রামের ওলিয়ার রহমানের মেয়ে।তার মাতার নাম ফিরোজা খাতুন।সে সৎভাবে বেঁচে বড় হয়ে যেকোনো কর্মের মাধ্যমে সমাজ সামাজিকতার (ভালো) কাজ করতে চাই।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ইবিতে রিডিং ক্লাবের আত্মপ্রকাশ

সিয়াম, ইবিঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে রিডিং ক্লাব নামে একটি সংগঠনের আত্মপ্রকাশ করেছে। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) …

error: Content is protected !!