সবার অল্প অল্প সহায়তা বাঁচাতে পারে ফুটফুটে শিশু তাহিয়াকে

জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সাবেক শিক্ষার্থী আল-আমিন। তার পাঁচ মাস বয়সী ফুটফুটে শিশু তাহিয়া আমিন খান তকি জন্মগতভাবেই বিরল রোগ বিলিয়ারি অ্যাট্রেসিয়ায় আক্রান্ত। নিজের সন্তানকে বাঁচাতে একের পর এক হাসপাতালে ছুটেছেন আল-আমিন।

চিকিৎসকরা বলছেন, এটি লিভারের একটি জটিল রোগ। তাহিয়াকে বাঁচাতে হলে লিভার ট্রান্সপ্লান্ট বা লিভার প্রতিস্থাপন করতে হবে। যার জন্য যেতে হবে ভারতের চেন্নাইয়ের রেলা ইন্সটিটিউটে। তবে এর জন্য প্রয়োজন ৫০-৬০ লাখ টাকা।

কিন্তু চিকিৎসার জন্য সব অর্থ শেষ করে আল-আমিন এখন নিঃস্ব। তাই বর্তমানে পর্যাপ্ত অর্থের অভাবে মেয়ের চিকিৎসা করাতে পারছেন না তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) শিশু সার্জারী বিভাগের ডা. এ কে এম জাহিদ হোসেন বলেন, লিভার ট্রান্সপ্লান্ট করলে তাহিয়াকে বাঁচানো সম্ভব। নয়তো তাকে বেশদিন বাঁচানো যাবেনা।

আল-আমিন বলেন, মেয়ের চিকিৎসার জন্য ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ঘুরছেন তিনি৷ অর্থ ব্যয় ছাড়া আর কোন কাজ হয়নি। অর্থ ব্যয় করতে করতে এখন তিনি নিঃস্ব প্রায়। ভারতে তাহিয়াকে নিয়ে চিকিৎসা করাতে হলে প্রায় ৫০-৬০ লাখ টাকা খরচ করতে হবে।

তিনি বলেন, এত টাকা কোন ভাবেই আর তার পক্ষে জোগাড় করা সম্ভব না। তাই মেয়ের চিকিৎসার জন্য বাধ্য হয়ে তিনি বিত্তবানদের সাহায্যের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

চিকিৎসার জন্য সাহায্য পাঠাতে নিম্নোক্ত নাম্বারগুলো ব্যবহার করতে হবে। মৌসুমী খানম (মা)- 01309190026 (বিকাশ,রকেট ও নগদ), আল-আমিন (বাবা)-01719659253 (বিকাশ,রকেট ও নগদ)

এছাড়াও ব্যাংক হিসেবে পাঠাতে হলে – ডাচ বাংলা ব্যাংক– একাউন্ট নং-2181030021225, Mousumi Khanam, Patuakhali Branch, Routing Number- 090781092

ইসলামী ব্যাংক– একাউন্ট নং-20507770220438916, Al amin,Taltali Branch,Agent Banking,Taltali Barguna

সোনালী ব্যাংক- একাউন্ট নং-4321601000876
উপরিউক্ত ঠিকানায় সাহায্য পাঠানো যাবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

লালপুরে ধান ক্ষেত থেকে কন্যা শিশুর লাশ উদ্ধার

নাটোরের লালপুরে ধান ক্ষেত থেকে বাবলী (৬) নামে এক কন্্যা শিশুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে …

error: Content is protected !!