ময়মনসিংহে কঠোর লক ডাউন বাস্তবায়নে ২১০টি মামলা ও জরিমানা করেন জেলা প্রশাসন

তাসনীমুল হাসান মুবিন, স্টাফ রিপোর্টারঃময়মনসিংহ বৃহস্পতিবার ১ লা জুলাই জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ এনামুল হক লক ডাউনের বাস্তব চিত্র পরিদর্শন করেন। তিনি শহরের বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও তার টিমের সাথে কথা বলেন এবং দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

এ সময় ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা হক, জেলা গোয়েন্দা শাখা অফিসার ইনচার্জ (ডিবি)র ওসি মোঃ শাহ কামাল আকন্দসহ ময়মনসিংহ ট্রাফিক বিভাগের পুলিশ কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও শহরের টাউনহল মোড়, গাঙ্গিনারপার, স্টেশন রোড, ব্রীজ মোড়, চরপাড়া, মাসকান্দ বাইপাস,মোড়ে সেনাবাহিনী,র্যাব বিশেষ টহল দিচ্ছে, কারণ ছাড়া বের হলে জরিমানা আদায় করছে, লকডাউনের প্রথম দিনে দুপুর পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের২১০ টিমামলা ও  জরিমানা করেন।

রাস্তায় দু একজন পথচারী ছাড়া কাউকে আসতে দেয়া হচ্ছে না। নতুর করে ৭দিনের কড়াকড়ি লকডাউনের প্রথম দিন পুলিশের পাশাপাশি সেনা বাহিনী ও বিজিবি সদস্যদের টহল দিতে দেখা গেছে। বন্ধ রয়েছে দোকান-পাট ও শপিংমল। চলছে না কোন ভ্যান, রিকসা, ইজিবাইক বা অন্য কোন মোটর যান। তবে সরকারের রাজস্ব আদায়ের স্বার্থে বন্দরে আমদানী-রফতানী বাণিজ্য সচলসহ লোড-আনলোড প্রক্রিয়া স্বাভাবিক আছে।
কাঁচা বাজার ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদী সকাল ৯ টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করতে পারবে। খাবারের দোকান, হোটেল রেস্তোরা সকাল ৮ টা থেকে রাত ৮ পর্যন্ত পার্সেলে বেচাকেনা করতে পারবে। সকল প্রকার গনজমায়েত, সভা সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ঔষুধের দোকান, আইন শৃখংলা বাহিনী ও তাদের বহনকারী গাড়ী, সংবাদকর্মিদের গাড়ী লক ডাউনের আওতামুক্ত থাকবে। সাধারন মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মাঠে কাজ করছেন উপজেলা প্রশাসনসহ সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

তিন জেলার মানুষ বিনামূল্যে পাবে চক্ষু চিকিৎসা

জবি প্রতিনিধি: পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও মানিকগঞ্জ এই তিন জেলায় অসহায়দের বিনামূল্যে চক্ষুসেবা দিতে চারটি চক্ষু …

error: Content is protected !!