মিডিয়া বিএনপি কে বাচিয়ে রেখেছে : কামরুল ইসলাম

সাবেক খাদ্য মন্ত্রী ও ঢাকা-২ আসনের এমপি এ্যাড: মো: কামরুল ইসলাম বলেছেন, বিএনপি কোন দল না। আজকে বিএনপির কোন অস্বিত্ব নেই। এক প্রকার মিডিয়া ই তাদের কে বাচিয়ে রেখেছে। মিডিয়া তাদেরকে কোরাম দিয়ে বাচিয়ে রেখেছে। বেগম খালেদা জিয়া জেল খানায়, তাদের মানুষের মধ্যে তাকে মুক্তি করার কোন চেতনা নাই, বিএনপির আন্দোলন করার মত কোন শক্তি নাই। মিডিয়াই তাদের কে টিকিয়ে রেখেছে। কিন্তু তারপরেও বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে বিএনপি পারদর্শী।

শনিবার ৫ জুন কেরানীগঞ্জের ঘাটারচরে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা আওয়ামীলীগের প্রধান কার্যালয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা আওয়ামীলীগের কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভার প্রধান অতিথির বক্ত্যবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে। আজকে ১২ বছর যাবৎ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায়। গেল ১২ বছরে যা উন্নয়ন হয়েছে তা দৃশ্যমান সবার কাছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০৪১ সালে উন্নত বিশ্বের স্বপ্ন আমরা দেখছি। যে বাংলাদেশকে মানুষ একসময় তলাবিহীন ঝুড়ি বলতো সে বাংলাদেশ আজকে ঘুড়ে দাড়িয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে। আজকে আমরা নিজ অর্থায়নে পদ্মাসেতু করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য বিশ্ববাসী আজকে আমাদের সম্মানের চোখে দেখে। বিশ্বের দশজন মহিলা নেত্রীর মাঝে তিনি একজন। আজকে তিনি বিশ্বের কাছে রোল মডেল। এখন উন্নয়নের অনেক সূচকে আমরা ভারত থেকে এগিয়ে আছি।

কিন্তু একটা গোষ্ঠি, যাদের বিরুদ্ধে আমরা ৭১ এ যুদ্ধ করেছি, বিএনপি, জামাত, হেফাজত ঐ একই গোষ্ঠির। এদের কে আলাদা করে দেখার কোন সুযোগ নাই। আমরা যতই উন্নয়নের দিকে যাচ্ছি, ঐ মৌলবাদী গোষ্ঠি ততই ষড়যন্ত্র করছে। আমাদের একটা অকার্য রাষ্ট্র হিসাবে পরিনত করার চেষ্টা করছে।

কামরুল ইসলাম আরো বলেন, বর্তমান সরকার যে বাজেট দিয়েছে , এ বাজেট আমাদের চলমান সংকট থেকে উত্তরনের বাজেট। সাধারন মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নয়নের দিকে লক্ষ রেখে আজকে এ বাজেট প্রনয়ন করা হয়েছে। যারা অহেতুক মানুষের সমালচনার অভ্যাস রয়েছে, যারা কোন ভাল জিনিস দেখতে চান না, তারাই এ বাজেটের সমালচনা করে। চলমান সংকট নিরশনের সকল রকম দিক নির্দেশনা ও পরিকল্পনা এ বাজেটে রয়েছে। এ বাজেট কে তুচ্ছ করার কোন অবকাশ নাই।
বাংলাদেশের সকলের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী করোনা টিকার ব্যবস্থা করবেন। অতি শীঘ্রই তা হবে।

স্থানীয় রাজনীতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কেরানীগঞ্জ উপজেলা দির্ঘদিন কোন নির্বাচিত কমিটি ছিলো না। ১৮ বছর যাবৎ একটি আহব্বায়ক কমিটি ছিলো। এমন কোথাও আছে কিনা যানা যাই। করোনা কালীন সময় পার হওয়ার পরেই যথাযথ নিয়মে পূর্নাঙ্গ কমিটি হবে। ঘরের মধ্যে ঘর করবেন না। সবাই সংগঠনের নিয়ম মেনে চলবেন। নিজেদের মধ্যে অন্তকোন্দাল করবেন না। বর্তমান কমিটি প্রধানমন্ত্রীর আশীর্বাদপুষ্ট কমিটি। সামনে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন, নির্বাচন নিয়ে নিজেদের মধ্যে কোন দন্ড তৈরী করবেন না।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহবায়ক আলতাফ হোসেন বিপ্লবের সঞ্চালনায় উক্ত সভার সভাপতিত্ব করেন ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিম। উক্ত সভায় মডেল থানা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। #

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

সরকারি সেতুর অংশ ভাঙা হলো ব্যাক্তিস্বার্থে ; ঝুকির মুখে সেতু !

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ব্যাক্তিগত সুবিধার জন্য ভাঙা হয়েছে সরকারি সেতুর কিছু অংশ। এতে করে ঝুকির মুখে …

error: Content is protected !!