পাট চাষে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে ধনবাড়ীতে

 

জহিরুল ইসলাম মিলন, টাঙ্গাইল (ধনবাড়ী)প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলায় পাট চাষে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে। চলতি মৌসুমে এ উপজেলার ৭ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভায় পাট চাষ হয়েছে ১৫০ হেক্টের জমিতে। যা গত বছরের তুলনায় বেশি। কৃষকরা পাটের দাম ভালো পাওয়ায় তাদের দিনদিন পাট চাষ আগ্রহ বাড়ছে। এছাড়াও বাজারে জ্বালানি হিসাবে পাট কাঠির চাহিদাও রয়েছে।

সরেজমিনে পাট চাষীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ১ বিঘা জমিতে পাট চাষ করতে খরচ হয় ৮ থেকে সাড়ে ৯ হাজার টাকা পর্যন্ত। আর ফলন ভালো হলে বিঘা প্রতি ১০ থেকে ১৩ মণ পাট পাওয়া যায়। তাই কৃষকরা অন্যান্য ফসলের পাশাপাশি অতিরিক্ত ফসল হিসাবে পাট পাচ্ছে। এতে করে তাদের পাট চাষে আগ্রহ বাড়ছে।
উপজেলার মুশুদ্দি ইউনিয়নের কৃষক রেজাউল করিম, আমজাদ হোসেন ও রোমান মিয়া জানান, আমারা প্রতি বছরই পাট চাষ করে থাকি। বর্তমান পাটের ভালো দাম ও চাহিদা থাকায় এবারও আমরা পাট চাষ করেছি। গত বছর পাট প্রতি মণ ৩ হাজার টাকা থেকে আরো বেশি দামে বিক্রি করা গেছে। আশা করছি প্রাকৃতিক দুর্যোগে কোন ক্ষতি না হলে পাটের ভালো ফলন পাবো। অপর চাষী মো. হান্নান মিয়া জানান, বর্তমানে পাটের ভালো দাম পাওয়ায় পাট ফসলে কৃষকদের আগ্রহ বেড়েছে। এছাড়ও কৃষকরা সরকারীভাবে সাহায্য-সহযোগিতা পাচ্ছে। উপজেলা কৃষি বিভাগ থেকেও নানা ধরনে পরামর্শ পাচ্ছেন পাট চাষীরা।

ধনবাড়ী বাজারের পাট ব্যাবসায়ী দোলাল হোসেন জানান, কৃষকরা গতবার ভালো দাম পাওয়ায় এবারও পাট আবাদ করেছেন। আশা করছি এ বছরও তারা ভালো দামে বিক্রি করতে পারবেন।

উপজেলার কৃষি সম্প্রসাধরণ কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান জানান, সরকারের নানামুখী উদ্যোগের ফলে বিগত বছরগুলোতে পাটের ভালো দাম পাওয়ায় এলাকার কৃষকদের মাঝে পাট চাষে আগ্রহ বাড়েছে। তবে বিগত কয়েক বছর পাট চাষে লাভের মুখ দেখায় এলাকার কৃষকেরা আবার পাট চাষ শুরু করেছেন। আমারাও কৃষকদের নানাভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

খামারি

অনলাইন বিক্রিতে আস্থা নেই খামারিদের

সারা দেশের ন্যায় আসন্ন ঈদ উল আযহা উপলক্ষে কেরানীগঞ্জের পশুর খামারগুলোও প্রস্তুত রয়েছে পশু বিক্রির …

error: Content is protected !!