মাধবপুরে গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু

 

শেখ জাহান রনি, মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি:
হবিগঞ্জের মাধবপুরে এক সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

সোববার ২৪ মে দুপুরে থানা পুলিশ মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে লাশ উদ্বার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে।গৃহবধুর নাম মিনা রানী সরকার (২৬)তিনি উপজেলার আন্দিউড়া ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের পুলেন্ড সরকারের স্ত্রী। স্বামীর পরিবারের দাবি সে সোমবার ভোর রাতে স্বামীর বাড়ির লোকজনের অগোচরে একটি জাম্বুরা গাছে শাড়ি পেছিয়ে আত্বহত্যা করে। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে গৃহবধুকে হাসপালে নিয়ে আসে। কর্ত্যব্যরত চিকিৎক জানান গৃহবধু মিনা রানী সরকার হাসপাতালে আসার আগেই মারা যান।

এদিকে নিহত গৃহবধুর ভাই নিরঞ্জন সরকার হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলা আগাপুর গ্রামের নয়ন সরকারের ছেলে বলেন, ভোর ৫টার দিকে বোনের মোবাইল ফোনে স্বামীর বাড়ি থেকে জানানো হয় তার বোন মিনা ষ্ট্রোক করে মারা গেছে।এ অবস্হায় এমৃত্যু নিয়ে তাদের সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছে।গৃহবধুর ভাই নিরঞ্জন সরকার আরও জানান, ৭/৮ বছর পূর্বে লাখাই উপজেলার আগানগর গ্রামের নয়ন সরকারের মেয়ে মিনা রানী সরকারের সঙ্গে মাধবপুর উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের পুলেন্দ সরকারের বিয়ে হয়।বিয়ের কয়েক বছর যেতে না যেতেই পারিবারিক কলহ লেখেই থাকতো।অনেক নির্যাতন সহ্য করে একটি সন্তানের মূখে দিকে চেয়ে সংসার করছিল। এমন দাবি পরিবারের। এমৃত্যু রহস্য ঘেরা।

সুরতহাল তৈরির দায়িত্বে মাধবপুর থানার এস,আই এনামুল হক বলেন, গলাছাড়া কোথাও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। মাধবপুর থানার ওসি মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক বলেন ঘটনাস্হল পরিদর্শন করেছি। লাশ উদ্বার করে ময়না তদন্তের জন্যে প্রেরন করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রির্পোট না পাওয়া পর্যন্ত এ মৃত্যু নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চাননি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

তিন জেলার মানুষ বিনামূল্যে পাবে চক্ষু চিকিৎসা

জবি প্রতিনিধি: পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও মানিকগঞ্জ এই তিন জেলায় অসহায়দের বিনামূল্যে চক্ষুসেবা দিতে চারটি চক্ষু …

error: Content is protected !!