‘সংবাদমাধ্যমের উপর ছড়ি ঘোরানোর পায়তারা করছে আমলাতন্ত্র’

জবি প্রতিনিধি: প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় ‘তথ্য চুরির’ অভিযোগ এনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আটকে রেখে নির্যাতন, হয়রানি ও পরবর্তীতে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (জবিসাস)। বৃহস্পতিবার সংগঠনের আহ্বায়ক লতিফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্যরা এই প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানান।

পেশাগত দায়িত্ব পালন ও তথ্য সংগ্রহের সময় সংবাদকর্মীর ওপর এহেন ন্যাক্কারজনক হামলায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তারা বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের লাগামহীন দুর্নীতি, নিয়োগে অনিয়ম, করোনাকালীন দূর্নীতিসহ সার্বিক অব্যবস্থাপনা নিয়ে সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম যে সংবাদগুলো প্রকাশ করেছেন তার ফলশ্রুতিতেই তিনি এই ভয়াবহ নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। সংবাদকর্মীদের ওপর এহেন নির্মম ও ন্যাক্কারজনক হয়রানি এক প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্রের মারমুখী রূপ। এরই মাধ্যমে বাক স্বাধীনতার পথ রুদ্ধ ও সংবাদমাধ্যমের উপর ছড়ি ঘোরানোর পায়তারা করছেন এক শ্রেণীর আমলারা।

জানা যায়, গত ১৭ মে বিকেলে সচিবালয়ে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের সচিবের ব্যক্তিগত সহকারীর কক্ষে পাঁচ ঘন্টা আটকে রেখে নির্যাতন ও হয়রানি করা হয়। এরপর রাত ৯টার দিকে সচিবালয় থেকে পুলিশ পাহারায় শাহবাগ থানায় নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে সরকারি নথি সরানো ও ছবি তোলার অভিযোগে মামলা দায়ের করে। আদালতে রিমান্ড চাওয়া হলে তা নাকচ করে পরবর্তীতে তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন।

এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তারা বলেন, অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের শর্তহীন মুক্তি, তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার এবং তাঁকে নির্যাতন ও হয়রানির সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ইবিতে রিডিং ক্লাবের আত্মপ্রকাশ

সিয়াম, ইবিঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে রিডিং ক্লাব নামে একটি সংগঠনের আত্মপ্রকাশ করেছে। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) …

error: Content is protected !!