বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ ফেডারেশন মালিকের দালালে পরিনত হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ ফেডারেশন মালিকেরা দালালে পরিনত হয়েছে বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক লীগ। গতকাল রবিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন সংগঠনটি।

সরকার কর্তৃক ঘোষিত মজুরীর প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী আসন্ন ঈদ উল ফিতর এর পূর্বে পরিবহণ শ্রমিকদের মালিক কর্তৃক এক মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস প্রদান সহ ১২ দফা দাবীতে রবিবার ( ৯ মে) সকালে  বঙ্গবন্ধু এভিনিউ দ্বিতীয় তলায় ঢাকা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক লীগের উদ্যোগে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ হানিফ খোকন। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইনসুর আলী। উপস্থিত ছিলেন প্রচার সম্পাদক মোঃ মোশারফ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, সহ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ সাইদুর রহমান রাজাসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। সাংবাদিক সম্মেলনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ঘোষিত মজুরীর প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী আসন্ন ঈদ উল ফিতর এর পূর্বে পরিবহণ শ্রমিকদের মালিক কর্তৃক এক মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস প্রদান, শ্রম আইন লঙ্ঘণ করে চাঁদাবাজির নির্দেশিকা তৈরীর সাথে জড়িত বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন ও মালিক সমিতির প্রতিষ্ঠিত চাঁদাবাজদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা, পরিবহণ শ্রমিকদের নিকট হতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন ও বাংলাদেশ পরিবহণ মালিক সমতি কর্তৃক দীর্ঘদিন ধরে আদায়কৃত অর্থ হতে শ্রমিকদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা প্রদান, কোভিড পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সরকার কর্তৃক পরিবহণ শ্রমিকদের আগামী এক বছর পর্যন্ত রেশন প্রদান ব্যবস্থা করা, কোভিড- ১৯ এ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবহণ শ্রমিকদের জীবন যাত্রার মান উন্নয়নের আগামী ২০২১-২০২২ অর্থ বছরে ১০ হাজার কোটি টাকা বাজেটে বরাদ্দ রাখা এবং শ্রম দপ্তর কর্তৃক রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত পরিবহণ সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে বাজেট বরাদ্দ বাস্তবায়ন করা, বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী স্বাস্থ্য বিধি মেনে পরিবহন চলাচল স্বাভাবিক করা, শ্রম আইন অনুযায়ী প্রত্যেক পরিবহণ মালিক কর্তৃক শ্রমিকদের নিয়োগপত্র প্রদানসহ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক লীগ কর্তৃক পরিবহণ শ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত ১২ দফা বাস্তবায়নের দাবী জানান।

প্রশ্নউত্তর পর্বে নেতৃবৃন্দ বলেন, লক ডাউন আমাদের শ্রমজীবী মানুষের জন্য অত্যন্ত পীড়াদায়ক ও দূর্বিসহ জীবনের বেড়াজাল। লক ডাউনে শিল্প প্রতিষ্ঠান খোলা, অফিস সার্ভিস সেক্টর খোলা, শপিং মল/বাজার ঘাট খোলা। বিপত্তি শুধু পরিবহনের বেলায়। অত্যন্ত দুঃখ জনক হলেও সত্য মালিকের নিয়োগ পত্র না থাকায় পরিবহণ শ্রমিকরা বেতন-ভাতা পায় না, গাড়ির চাকা না ঘুরলে তাদের রুটি-রুজির ব্যবস্থা হয় না। পরিবহন মালিকরা তাদের দায়িত্ব নিচ্ছে না এবং সরকারের পক্ষ থেকেও কোন অনুদান বা প্রণোদনা পরিবহণ শ্রমিকরা এখনো পায় নাই। এমনকি পাওয়ার কোন আশায়ও মালিক বা সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হয় না। নেতৃবৃন্দরা বলেন, শ্রমিক ফেডারেশন ও মালিক সমিতি শ্রমিকদের পাশে নাই। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন ও মালিক কর্তৃক শ্রম আইন বিরোধভাবে চাঁদার নির্দেশিকা তৈরী সড়কে চাঁদাবাজী প্রমান করে তারা প্রতিষ্ঠিত চাঁদাবাজ এবং অবিলম্বে এই চাঁদাবাজদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে হবে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন সাংবাদিক সম্মেলন মালিকের জন্য সরকারের কাছে প্রণোদনা দাবী করায় প্রমাণিত হয়েছে তারা মালিকের দালাল। তারা পরিবহণ শ্রমিকদের আন্দোলনের নামে রাস্তায় নামিয়ে করোনার বিস্তারকে বৃদ্ধি করছে। সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন ঈদের দিন টার্মিনালে অবস্থান ধর্মঘটের দিয়ে এক দিকে সরকারকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে অন্যদিকে পরিবহণ শ্রমিকদের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলায় মেতেছে।

সাংবাদিক সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশন কর্তৃক ঈদের দিনে হঠকারী কর্মসূচী প্রত্যাখ্যান করেন এবং অবিলম্বে তাদের এই কর্মসূচী প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়ে শ্রমিকদের নিকট হতে ইতিপূর্বে আদায়কৃত অর্থ হতে শ্রমিকদের খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদানের করতে জানান।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

নরসিংদীতে পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি, ভুয়া পুলিশ গ্রেফতার

হৃদয় এস সরকার, নরসিংদী: নরসিংদীর মাধবদীতে পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে পুলিশের হাতেই গ্রেফতার এক …

error: Content is protected !!