কেরানীগঞ্জে নৈশ্য প্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা

কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন আতাসুর এলাকায় সামছ’ল হক (৪৪) নামের এক নৈশ্য প্রহরীকে উপর্যপুরি কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দিবাগত রাতে।

পুলিশ খবর পেয়ে শনিবার ভোরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী শেষে ময়না তদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফের্ড হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী রমজানুল হক জানান, এলাকাবাসি কাছ থেকে সংবাদ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌছে নিহতের রক্তাক্তমাখা লাশ পড়ে থাকতে দেখি। পড়ে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠাই। নিহতের বুক-পেটসহ বিভিন্নস্থানে মোট সাতটি ধারালেঅ অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ধারনা করা হচ্ছে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যপুরি কুপিয়ে হত্যার পর লাশ রেখে পালিয়ে যায়। নিহত সামছুল হক কালিন্দী ইউনিয়নের জনৈক রতন মিয়ার খামারে নৈশ প্রহরী হিসাবে কর্মরত ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি চাপাই নবাবগঞ্জ জেলার সদর থানার গড়াই পাড়া এলাকায়। তার পিতার নাম মৃত হাজি সোলায়মান মন্ডল। এ ব্যাপারে নিহতের ভাতিজা আনারুল হক বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। তিনি আরো বলেন, আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। হত্যার ঘটনার খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার ।

নিহতের ভাতিজা আনারুল হক জানান, তার চাচা নিহত সামছুল হক একজন রিরিহ প্রকৃতির লোক ছিলেন। তার কোন শত্রæ ছিল না। চাচা রতন সাহেবের খামারে নৈশ্য প্রহরী হিসাবে কাজ করতেন। চাচা রাতের বেলা ডিউটি করে দিনের বেলা পাশেই রুমে ঘুমাতেন। বাহিরে তার কোন আড্ডা ছিল না। পুলিশের কছে আমার অনুরোধ যারা আমার চাচা হত্যার সাথে জড়িত আছে অতি শিগ্রই তাদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার পূর্বক াইনের আওতায় এনে ফাসি দেয়া হউক। #

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কেরানীগঞ্জে ছাদের রেলিং ভেঙে ৯ মাসের শিশুর মৃত্যু; পরিবারের দাবী হত্যাকান্ড

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ছাদের রেলিং ভেঙে পরে গিয়ে আব্রার নামে ৯ মাসের একটি শিশু মারা গেছে। …

error: Content is protected !!