মাধবপুরে তরমুজ ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটে জিম্মি ক্রেতারা

শেখ জাহান রনি, মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

গরম প্রচণ্ড বলে চাহিদা বেড়েছে, কিন্তু বৃষ্টিহীন অবস্থা প্রভাব ফেলেছে ফলনে, আবার লকডাউনের কারণে পরিবহনে খরচ বেশি- এসব মিলিয়েই এবার তরমুজের বাজারে আগুন বলে হবিগঞ্জের মাধবপুর বাজারে বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে।

পবিত্র রমজান ও ধারাবাহিক অধিক দাবদাহের কারণে একটু স্বস্তি পেতে এবার ক্রেতাদের কাছে তরমুজের চাহিদাও বেশি।এই চাহিদাকে কেন্দ্র করে অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে তরমুজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন।ফলে মাধবপুর পৌরশহর সহ প্রতিটি হাট-বাজারে তরমুজ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। একটি তরমুজ ক্রেতাদের কিনতে হচ্ছে ৪শ’ থেকে ৫শ’ টাকায়। যা সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে।উপজেলার সর্বত্র এখন খুচরা পর্যায়ে অনেক ক্রেতা আপত্তি জানাচ্ছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও তরমুজের চড়া দাম নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ ক্রেতারা।বাজারে তরমুজ কিনতে আসা এক ক্রেতা বলেন, একটা মাঝারি ধরনের তরমুজ ৪০০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। সিন্ডিকেট করে তরমুজের বাজারে এ পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হচ্ছে। এসব সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।তরমুজের চড়া দামের ব্যাপারে জানতে চাইলে বিক্রেতা তোফায়েল বলেন,লকডাউনে বাজারে আগের মত তরমুজ আসছে না। যার কারণে বেশি দামে কিনে বিক্রি করতে হচ্ছে ।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতেমা-তুজ-জোহরা বলেন আমরা মাধবপুরের তরমুজের বাজার যাচাই করে দেখেছি যে ব্যবসায়ীদের বেশি দামে তরমুজ কেনা।তারপর ও সাধারণ মানুষ যেন ক্রয়ক্ষমতার ভিতররে কিনতে পারে আমরা তাদের বাজার বুঝানোর চেষ্টা করেছি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

প্রধান শিক্ষক এখন গরু খামারের কেয়ারটেকার

তাসনীমুল হাসান মুবিন,স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহের ত্রিশালের আলহেরা একাডেমী এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক আজিজুল হক …

error: Content is protected !!