অনলাইনে নববর্ষ উদযাপনের মাধ্যমে দুই বাংলাকে একত্রিত করলো GLTS

তাসনীমুল হাসান মুবিন,স্টাফ রিপোর্টারঃবৈশ্বিক মহামারির সময় যখন পুরো বিশ্ব গেছে থমকে তখন বিশ্বরেকর্ডধারী আন্তর্জাতিক সংস্থা গ্লোবাল ল’ থিংকার্স সোসাইটি(জিএলটিএস) নিয়েছে ভিন্ন এক উদ্যোগ। এবার বাঙালির প্রাণপ্রিয় উৎসব পহেলা বৈশাখ উৎযাপিত হলো অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমের মাধ্যমে, “দুই বাংলার বৈশাখ”।যেটি যৌথভাবে আয়োজন করেছে জিএলটিএস বাংলাদেশ টিম এবং ওয়েস্ট বেঙ্গল, ইন্ডিয়া।

“দুই বাংলার বৈশাখ” শিরোনামে জমকালো এই আয়োজনের মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মের কাছে পৌঁছে যাবে বাংলার সেই সংস্কৃতি যা আজ হুমকির মুখে এবং দিকে দিকে ছড়িয়ে যাবে শান্তির বার্তা।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান করেন জিএলটিএস এর সম্মানিত জেনারেল সেক্রেটারি, খালেদ মাসুদ মজুমদার এবং অনুষ্ঠানের বিবরণ নিয়ে বক্তব্য দেন জিএলটিএস এর সম্মানিত প্রেসিডেন্ট অফিসের প্রধান কর্মকর্তা এবং জয়েন্ট অরগানাইজিং সেক্রেটারি, এড. মাহিন মেহেরাব অনিক।এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নাসিমা আক্তার নিসা,মোহাম্মদ মোহাসিন,মুনা চৌধুরী এবং আলিসা প্রাধান।
এছাড়াও প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন,জিএলটিএস এর সম্মানিত জয়েন্ট সেক্রেটারি, সোলাইমান আহমেদ জিসান,অরগানাইজিং সেক্রেটারি জেসমিন আক্তার এবং বাংলাদেশ কান্ট্রি লিডার মাহির দাইয়ান ও ওয়েস্ট বেঙ্গলের জোনাল লিডার, শ্বেতা মজুমদারসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দরা।
অনুষ্ঠানটির শেষে সমাপনী বক্তব্য দেন জিএলটিএস এর সম্মানিত প্রেসিডেন্ট রাওমান স্মিতা এবং বলেন, “এই অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে আমাদের দুই বাংলা একত্রিত হবে এবং সকলের কাছে শান্তির বার্তা পৌঁছে দিবে। সৃষ্টি করবে নতুন এক মাইলফলক।”
অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন জিএলটিএস বাংলাদেশ টিমের এইচ.আর.লিডার তুহফাতুল জিনান এবং হেড অব বাংলাদেশ পাউয়ার টিম, নাসিফ জাহাঙ্গীর।

বাঙালির সংস্কৃতি প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম বিদ্যমান থাকবে। এই প্রত্যাশা নিয়েই গ্লোবাল ল থিংকার্স সোসাইটির লিডাররা অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠান সফল করেছেন যার মাধ্যমে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় তারা এক ধাপ এগিয়ে গেলো।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

লালপুরে মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর

নাটোরের লালপুরে শীতলা মন্দিরের প্রতিমার মাথা ও হাত ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার …

error: Content is protected !!