ফুলবাড়িয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে নিহত -১ আটক-২

 

স্টাফ রিপোর্টারঃময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে হারুন মিয়া (৪০) কে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত হারুন মিয়া উপজেলার আছিম ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের সেকান্দার আলী মৌলভীর ছেলে।

শুক্রবার উপজেলার আছিম ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধে হারুনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষ।

পরে রাত ৮টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যায়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, গত ৩ ফেব্রুয়ারী জমি সংক্রান্ত বিরোধে রাসেল মিয়াদের সাথে নিহত হারুন মিয়াদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় পরদিন ৪ ফেব্রুয়ারী রাসেল মিয়া বাদী হয়ে নিহত হারুন মিয়াকে প্রধান আসামী করে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় হারুন মিয়া ৩ দিন জেলহাজতে থাকার পর জামিনে বের হয়ে আসেন বলেও জানা গেছে।

এ বিষয়ে ফুলবাড়িয়া থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান বলেন, উপজেলার আছিম ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে জমি নিয়ে নিহত হারুন মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল একই গ্রামের রাসেল মিয়াদের সাথে। এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে দুই পক্ষের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে দুই পক্ষ সংঘর্ষ জড়ায়। এ সময় গুরুতর আহত হয় হারুন মিয়ার মা রওশন আরা ও তার ভাই রুকনুজ্জামান। পরে স্থানীয় আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হারুন মিয়া মারা যান।

ওসি মো. আজিজুর রহমান আরও বলেন, সকালে দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় শুক্রবার (২৬) বিকালে আহত রুকনুজ্জামানের স্ত্রী রুমা আক্তার বাদী হয়ে রাসের মিয়াসহ ১০ জনকে আসামী করে ফুলবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় আটক দুইজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে হারুন মিয়া (৪০) কে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত হারুন মিয়া উপজেলার আছিম ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের সেকান্দার আলী মৌলভীর ছেলে।

শুক্রবার উপজেলার আছিম ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধে হারুনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষ।

পরে রাত ৮টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যায়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, গত ৩ ফেব্রুয়ারী জমি সংক্রান্ত বিরোধে রাসেল মিয়াদের সাথে নিহত হারুন মিয়াদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় পরদিন ৪ ফেব্রুয়ারী রাসেল মিয়া বাদী হয়ে নিহত হারুন মিয়াকে প্রধান আসামী করে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় হারুন মিয়া ৩ দিন জেলহাজতে থাকার পর জামিনে বের হয়ে আসেন বলেও জানা গেছে।

এ বিষয়ে ফুলবাড়িয়া থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান বলেন, উপজেলার আছিম ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে জমি নিয়ে নিহত হারুন মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল একই গ্রামের রাসেল মিয়াদের সাথে। এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে দুই পক্ষের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে দুই পক্ষ সংঘর্ষ জড়ায়। এ সময় গুরুতর আহত হয় হারুন মিয়ার মা রওশন আরা ও তার ভাই রুকনুজ্জামান। পরে স্থানীয় আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হারুন মিয়া মারা যান।

ওসি মো. আজিজুর রহমান আরও বলেন, সকালে দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় শুক্রবার (২৬) বিকালে আহত রুকনুজ্জামানের স্ত্রী রুমা আক্তার বাদী হয়ে রাসের মিয়াসহ ১০ জনকে আসামী করে ফুলবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় আটক দুইজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

লালপুরে ধান ক্ষেত থেকে কন্যা শিশুর লাশ উদ্ধার

নাটোরের লালপুরে ধান ক্ষেত থেকে বাবলী (৬) নামে এক কন্্যা শিশুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে …

error: Content is protected !!