খানসামা থানার ইনচার্জ আব্দুল মতিন প্রধানের মহানুভবতা!

পুলিশকে নিয়ে যখন অনেকেই প্রশ্ন তুলেন ঠিক তখনই কিছু ভালো পুলিশেরও সন্ধান মেলে আমাদের চারপাশে!

দিনাজপুর জেলার খানসামা থানার ইনচার্জ আব্দুল মতিন প্রধান বেশ অনেকদিন ধরেই খানসামা থানায় দায়িত্বরত হিসেবে আছেন।

পুলিশের সহায়তায় যেমন কমেছে মাদক,বাল্যবিবাহ,অসামাজিক কার্যকলাপ তেমনি বিপদের সময়ও সাধারণ মানুষ পেয়েছে বন্ধু হিসেবে!

গত ১২/১২/১৭ খ্রিঃ তারিখ রাতে খানসামা বাস স্ট্যান্ডে অবস্থিত খানসামার গোবিন্দপুর (কলেজ পাড়া) মোঃ নাজমুল ইসলাম এর কনফেকশনারীর দোকান বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট হতে আগুন লেগে পুরে যায়! পুড়ে যাওয়া দোকানের প্রায় ২/৩ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়!

নাজমুল ইসলাম খানসামা থানা ইনচার্জকে বিষয়টি জানালে আব্দুল মতিন প্রধান তাঁর পক্ষ থেকে ৫ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করেন সেই সাথে অসহায় এই লোকটির পাশে বিত্তবানদের দাড়ানোর কথাও বলেন।

আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় যখন দিনদিন পুলিশ জনগণের মধ্যে দূরত্ব বাড়ছে ঠিক তখনি এমনও পুলিশের আবির্ভাব ঘটতেছে যার জন্য সমাজের সাধারণ মানুষ ভরসা পাচ্ছে পুলিশের কাছে।

থানা ইনচার্জ আব্দুল মতিন প্রধান দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই খানসামা উপজেলার অনেক মামলা কমেছে সেই সাথে তিনি বিভিন্ন বিষয়ে মানুষকে পরামর্শ দিয়ে মামলা থেকে বিরত থাকারও আহ্বান জানান।
যাতে মামলা মোকদ্দমায় কারো সর্বনাশ কিংবা ক্ষতি না হয়! যদি গুরুতর কোনো বিষয় হয় সেক্ষেত্রে তিনি তাৎক্ষণিক আইন প্রয়োগেে মাধ্যমেও সফলতা দেখিয়েছেন।

পুলিশের কর্মক্ষেত্রে এরকম আব্দুল মতিন প্রধানের অনেক বেশি বেশি প্রয়োজন,যাতে পুলিশকে সবাই সত্যিকার অর্থেই বন্ধু ভাবতে শুরু করেন।

আরো পড়ুন : শিক্ষা অনির্বাণের সফলতা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

করোনার টিকা নিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী পলক

  মন্ত্রিসভার প্রথম সদস্য হিসেবে করোনার টিকা নিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!