“আমার ভূমি আমার মা কাইরা নিতে দিমুনা”

 

জহিরুল ইসলাম মিলন, টাংগাইল (ধনবাড়ী) প্রতিনিধিঃ-“আমার ভূমি আমার মা কাইরা নিতে দিমুনা ” এই শ্লোগানটি বুকে ধারণ করে টাঙ্গাইলের মধুপুরে সংরক্ষিত বনভূমি উদ্ধার নিয়ে সম্প্রতি সরকারি পদক্ষেপকে উদ্ধারের নামে উচ্ছেদ ষড়যন্ত্র দাবি করে ভূমি অধিকারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচির পর এবার বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন টাঙ্গাইলের মধুপুর বনাঞ্চলের ক্ষুদ্র গারো নৃ-গোষ্ঠীর নারী-পুরুষরা।

রোববার বেলা ১১টা থেকে দুপুর পর্যন্ত জলছত্র ফুটবল মাঠে এ বিক্ষোভ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মধুপুর গড়াঞ্চলের সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি ইউজিন নকরেক। এতে কয়েক হাজার গারো নারী-পুরুষের সাথে বাঙালিরাও অংশ নেন। এর আগে সকাল থেকে তারা বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে মিছিল নিয়ে মাঠে জমায়েত হতে থাকে।

এর আগে গত ২৫ জানুয়ারি মধুপুর বাসস্ট্যান্ডে তারা মানববন্ধন করে এবং ইউএনওর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর ভূমির অধিকার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপিতে বন বিভাগ, আদিবাসী ও রাজস্ব বিভাগগের যৌথ উদ্যোগে জরিপের মাধ্যমে আদিবাসীদের ভূমি চিহ্নিত করা, মধুপুর বনাঞ্চলের সংরক্ষিত, জাতীয় উদ্যান, ইকোপার্ক ঘোষণা বাতিল, ১৯৮২ সালের আটিয়া বন অধ্যাদেশ বাতিল, স্বত্বদখলীয় ভূমিসমূহ স্থায়ী বন্দোবস্তের ব্যবস্থা করা, বন মামলাসমূহ ভ্রাম্যমাণ আদালত সৃষ্টি করে দ্রুত নিষ্পত্তির ব্যবস্থা করা ও সামাজিক বনায়ন বাতিল করে প্রাকৃতিক বন রক্ষার দায়িত্ব তথা কমিউনিটি ফরেস্ট্রি বা গ্রামবন পদ্ধতি চালু করাসহ ৬ দফা দাবিনামা উত্থাপন করা হয়েছে।

জলছত্র ফুটবল মাঠের প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তৃতা করেন- জয়েনশাহী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি ইউজিন নকরেক, জিএমডিসির সভাপতি অজয় এ ম্রি প্রমুখ। সংহতি প্রকাশ করেন সেড এর পরিচালক ফিলিপ গাইন, নিজেরা করি উন্নয়ন সংগঠনের ফজলুল হক, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রহিম, জুলহাস উদ্দিন, আক্তার হোসেন, রেজাউল করিম বেনু প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেয়ার পাশাপাশি স্থানীয় সংসদ সদস্য ও কৃষিমন্ত্রীকে জাতীয় সংসদে বিষয়টি উত্থাপনের জোর দাবি জানানো হয়েছে মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে। তাদের মানববন্ধন চলাকালে টাঙ্গাইল-মযমনসিংহ ও জামালপুর এই তিন মহাসড়কে প্রায় ৩ কিলোমটারে অসংখ্য যানবাহনের যানজট সৃষ্টি হয়। যাত্রী ও পথচারীসহ সবাইকে প্রায় দুই ঘণ্টা দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

যশোরে করোনা সংক্রমণরোধে জেলা পুলিশের সচেতনতামূলক কর্মসুচী

আক্তার মাহমুদ, (যশোর) :করোনা সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করা, সরকারি বিধি-নিষেধ কঠোরভাবে প্রতিপালনের লক্ষ্যে …

error: Content is protected !!