রাজবাড়ীতে নৌকার মেয়র প্রার্থী মহম্মদ আলীকে সংবর্ধনা প্রদান

শেখ রনজু আহাম্মেদ রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ রাজবাড়ী পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরীকে ব্যবসায়ী সমাজের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

গতকাল ২৭শে জানুয়ারী সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের পাশে পৌর মিলেনিয়াম মার্কেটের পিছনে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজবাড়ী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি কাজী ইরাদত আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, সংবর্ধিত মেয়র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মহম্মদ আলী চৌধুরী, তার সহধর্মিনী ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি প্রফেসর ফকরুজ্জামান মুকুট, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও রাজবাড়ী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক আঃ সালাম মন্ডল, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র প্রার্থী মহম্মদ আলী চৌধুরীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব সফিকুল ইসলাম সফি, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক মোঃ সাইফুল ইসলাম সোহাগ, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি আলী হোসেন পনি, কাজী পরিবারের সন্তান কাজী টিটু, আয়োজকদের মধ্যে উজ্জ্বল হোসেন, তানজিল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যবসায়ী আব্দুল জলিল এবং সঞ্চালনা করেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রকিবুল হাসান পিয়াল।

অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজবাড়ী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি কাজী ইরাদত আলী বলেন, নৌকা স্বাধীনতার প্রতীক। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতীক। জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতীক। এই নৌকা আমাদেরকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা মহম্মদ আলী চৌধুরীকে নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। তাই নৌকাকে বিজয়ী করতে না পারলে শেখ হাসিনাকে অপমান করা হবে, বঙ্গবন্ধু শেখ হাসিনাকে অপমান করা হবে। নৌকার সাথে বেঈমানী করা হলে বঙ্গবন্ধুর রক্তের সাথে বেঈমানী করা হবে।

এছাড়াও তিনি স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর শেখ তিতুর প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের মিটিংয়ে এসে একজন বলে গেছেন তার সাথে নাকি ৮০ শতাংশ পৌরবাসী রয়েছে। মাদকসেবী কেউ নির্বাচিত হলে পৌরসভায় গাঁজার আসর বসবে। অপরদিকে বিএনপির প্রার্থী বিজয়ী হলে স্বাধীনতা বিরোধীদের আস্ফালন বেড়ে যাবে। উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে। এ জন্য আপনারা ভেবে-চিন্তে ভোট দিবেন। উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারাবাহিকতা রক্ষায় মহম্মদ আলী চৌধুরীকে বিজয়ী করবেন।

মেয়র প্রার্থী মহম্মদ আলী চৌধুরী বলেন, নৌকা উন্নয়নের মার্কা। এই নৌকা বঙ্গবন্ধুর নৌকা-জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা। আমি ২ বার মেয়র নির্বাচিত হয়েছি এবং ১২ বছর মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছি-এখনো করছি। দায়িত্ব পালনকালে অনেক কিছুই করেছি, আবার অনেক কিছুই করতে পারি নাই। মানুষ মাত্রেই ভুল হয়ে থাকে। আমারও ভুল-ত্রুটি হতে পারে। ভুল হয়ে থাকলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। রাজবাড়ী পৌরসভায় মরহুম কাজী হেদায়েত হোসেন, মরহুম তোফাজ্জেল হোসেন মিয়া ও আলী নেওয়াজ মাহমুদের মতো ব্যক্তিত্বরা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। তাদের পাশে মেয়র হিসেবে কাকে মানায় আপনারাই বিবেচনা করবেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

শোক দিবস উপলক্ষ্যে কোতোয়ালি থানা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা

জাতীয় শোক দিবস উপলক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের …

error: Content is protected !!