সাবেক মন্ত্রীর দখলে থাকা ৫০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

নাসির উদ্দিন,টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ

আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর অবৈধভাবে দখলে থাকা ৬৬ শতাংশ জমির স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন। ২৪ জানুয়ারি রোববার সকালে শহরের প্রাণকেন্দ্র আকুরটাকুর পাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভেকু দিয়ে স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

 

জেলা প্রশাসক কার্যলয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোজলিন শহীদ চৌধুরী ও সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) খাইরুল ইসলামের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের সময় আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর পক্ষের কাউকে দেখা যায়নি।
স্থানীয়রা জানান, আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী টাঙ্গাইল শহরের আকুর টাকুর পাড়া মৌজায় ১৯৭২ সালে ২৪২ খতিয়ানের ৭৮৮ দাগে ৬৬ শতাংশ জমিটি লিজ নিয়ে ভোগ করে আসছিলেন। পরে তিনি ওই জমিতে মার্কেট নির্মাণ করেন। তবে মার্কেটটি চালু করতে পারেনি। এরপর তিনি জমিটির নিজের নামে কাগজ তৈরি করেন।

ম্যাজিস্ট্রেট রোজলিন শহীদ চৌধুরী বলেন, ‘শহরের আকুর টাকুর পাড়া মৌজায় ২৪২ খতিয়ানের ৭৮৮ দাগে প্রায় ৫০ কোটি টাকা মূল্যের ৬৬ শতাংশ জমিটি দীর্ঘদিন ধরে সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী ভুয়া কাগজ তৈরি করে জমিটি ভোগ দখল করে আসছিলেন।

বিষয়টি নিয়ে মামলা হলে উচ্চ আদালত লতিফ সিদ্দিকীর জাল দলিল বাতিল করে সরকারের পক্ষে রায় দেন। পরে জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনির নির্দেশে অভিযান পরিচালনা করে অবৈধভাবে দখলে থাকা ৬৬ শতাংশ জমির স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। উদ্ধারকৃত জমিটি জেলা প্রশাসনের তত্বাবধানে নেওয়া হয়েছে।’

সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খাইরুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারি সম্পত্তি দখলদার যত প্রভাবশালী হোক তাদের হাত থেকে পর্যায়ক্রমে সকল জমি ও স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

৯৯৯ এ ফোন ; কেরানীগঞ্জে ২টি অস্ত্র উদ্ধার

৯৯৯ এ ফোনের মাধ্যমে অভিযোগ পেয়ে ২টি অস্ত্র উদ্ধার করেছে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। রবিবার …

error: Content is protected !!