জাজিরায় তিন ইউপি সদস্যকে বহিষ্কার

পল্লব আহমেদ সিয়াম, শরীয়তপুর প্রতিনিধি: নাওডোবা ইউনিয়নের তিনজন ইউপি সদস্যকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। প্রতিবন্ধী ভাতা আত্মসাৎকারী মেম্বারদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

শরীয়তপুরের জাজিরার নাওডোবা ইউনিয়নের ১০০ উপকারভোগী প্রথমবারের মতো প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা উত্তোলন করেছিলেন। ওই ইউনিয়ন পরিষদের তিন সদস্য (ইউপি) ব্যাংকে টাকা উত্তোলনের সময় তাঁদের সঙ্গেই ছিলেন। ‘প্রথমবার টাকা মেম্বাররাই নেয়, এটাই নিয়ম’— এমন কথা বলে তাঁদের কাছে থেকে ইউপি সদস্যরা দুই থেকে আট হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। পরবর্তীতে এই বিষয়ে ভুক্তভোগীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করলে তদন্ত করে সমাজসেবা কার্যালয় এই ঘটনার সত্যতা পায়। ওই তিন ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করে তদন্ত প্রতিবেদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে জমা দেয় সমাজসেবা দপ্তর। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তিন সদস্যকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

ভুক্তভোগী শারীরিক প্রতিবন্ধী ইলিয়াছ তালুকদারের কাছ থেকে ৫ অক্টোবর ইউপি সদস্য সালমা আক্তার নয় হাজার টাকা নিয়ে নেন। ইলিয়াছ জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। ইলিয়াছ তালুকদার বলেন, টাকা চাইলে সালমা আক্তার দুই হাজার টাকা ফেরত দিয়ে বলেন, “প্রথমবার টাকা মেম্বাররাই নেয়, এটাই নিয়ম।”

বহিষ্কৃত তিনজন হলেন নাওডোবা ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের শাহিন ফকির, সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের সদস্য মনোয়ারা বেগম ও সালমা আক্তার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কেরানীগঞ্জে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘ডাকাত’ নিহত

কেরানীগঞ্জে ডিবি পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিব্ধ হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় (২৫) ডাকাত নিহত হয়েছেন। রোববার দিবাগত …

error: Content is protected !!