জবি শিক্ষার্থী নাঈম রাজ এর কবিতা ‘আতুড়ঘর’

আতুড়ঘর

– নাঈম রাজ

আরশোলায় মতো ফুড়ুৎ করে– এসেছি একদিন
এরপরে হলো জন্ম,
ঐ একবারই জন্মেছি
তারপর বহুকাল, বহু প্রতীক্ষা, বহু বাসনা- চলে যায়!
আমি আর জন্মাই না,
আমার আর জন্ম নেই
আমার আর মৃত্যু নেই।

যে একবার জন্মায় তার আর মৃত্যু হয় না,
তবে-
মৃত্যু স্বাদ অনন্তকাল কাঁধের জোয়ালে বহন করতে হয়।

প্রথমে আমি বাতাস ছিলাম
এরপর জল-মাটি হয়ে বস্তুতে পরিণত হয়েছি।
আমার প্রাণ ছিলো না
প্রাণ পেলাম।
পরমেশ্বর আমাকে প্রাণ দিলেন-
আমি নামানুষ হয়ে জন্মালাম।
এখন আমি স্রষ্টা,
ঈশ্বরের রূহানী আমার অস্তিত্বে মিশে গেছে-
তাই আমি শিল্পী!
আমার তুলিতে!ঝুলিতে!
গল্পের কল্বে কল্বে-
শিল্প ছন্দের বীণা বাজে।

আমার খোলসের আড়ালে খেলা করে-
হিংস্র জিঘাংসা,
যেদিন সকল লালসা মুছে সত্য হবো
আমি সেদিন মানুষ হবো
মানুষ হবো সেদিন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

জবি রোভার স্কাউট গ্রুপের বার্ষিক দোয়া মাহফিল সম্পন্ন

জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার স্কাউট গ্রুপের বার্ষিক দোয়া মাহফিল জুম ওয়েবিনারে সম্পন্ন হয়েছে। দোয়া …

error: Content is protected !!