আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছে নন্দীগ্রামের হতদরিদ্র ২৮ পরিবার

 

অসীম কুমার, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার নন্দীগ্রামে ওমরপুর সড়কপাড়ার বসবাসকারী ২৮ পরিবারের আত্মহত্যার হুমকি দিয়ে অবিলম্বে পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছে। দীর্ঘদিন পূর্বে নন্দীগ্রাম পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের ওমরপুর মহাসড়কের পাশের জায়গায় গড়ে উঠে ওমরপুর সড়কপাড়া।

সেখানে হতদরিদ্র মানুষের বসবাস। কেউ মাছ বিক্রি করে, কেউ দিনমজুরের কাজ করে, আবার কেউ ভিক্ষা করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। তাদের নিজস্ব কোনো প্রকার জায়গা-জমি নেই। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা মহাসড়কের পাশে বসবাস করে আসছে। বর্তমানে বগুড়া-নাটোর মহাসড়ক প্রসস্থকরণ কাজ চলছে। এমতাবস্থায় তাদের ১০ দিনের সময় বেঁধে দিয়ে মহাসড়কের পাশে থেকে বসতবাড়ি সরে নেয়ার জন্য সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর হতে নির্দেশ দিয়েছে। তারা এখন কোথায় যাবে, কোথায় থাকবে তার কোনো ঠাঁই ঠিকানা নেই।

৬ জানুয়ারি পুনর্বাসনের দাবিতে তারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। এরপর সরকারি ঘর বা গুচ্ছগ্রাম বরাদ্দ চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত আবেদন করেছে।

লিখিত আবেদনে উল্লেখ করেন, ১০ দিনের মধ্যে তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করলে ২৮ পরিবারের সদস্যরা বিছানা বালিশ নিয়ে মহাসড়কের উপর শুয়ে পড়বে। তাদের দাবি সরকার হয় তাদের বসবাস করার জায়গা দিবে, না হয় তাদের উপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে চিরতরে ঘুমিয়ে দিবে। এক কথায় তারা আত্মহত্যা করার কথা বলেছে।

এ বিষয়ে ওমরপুর সড়কপাড়ার বসবাসকারী আবু সাঈদ, আবু বক্কর ও লাল চাঁন জানান, আমাদের কোনো ঠাঁই ঠিকানা নেই। তাই আমরা এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি। সরকার যদি আমাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করে তাহলে আমরা উপকৃত হবো।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতারের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ওমরপুর সড়কপাড়ার বসবাসকরীরা সরকারি ঘর বা গুচ্ছগ্রাম চেয়ে লিখিত আবেদন করেছে। বিষটি আমরা দেখবো ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

মাধবপুরে পাটের ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

  শেখ জাহান রনি, মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় মাধবপুর উপজেলায় পাটের ফলন ভালো …

error: Content is protected !!