খুলনায়‌ বই উৎসব 

আশরাফুল ইসলাম খুলনা সদর প্রতিনিধিঃ

স্বাস্থ্যবিধি ‌ও‌‌শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে ‌খুলনায় শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের হাতে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হয়ছে ।

  • এর আগে, ৩১ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী এবারের পাঠ্যপুস্তক উৎসব ভার্চুয়ালী উদ্বোধন করেছেন।

নির্দেশনা অনুযায়ী ধাপে ধাপে বিতরণ করা হবে বই।
প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বছরের প্রথম দিনই নতুন বই হাতে পাবে, তবে মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের মধ্যে নতুন ক্লাসের বই বিতরণ করা হবে ১২ দিনে। বছরের প্রথমদিন ১ জানুয়ারি থেকে ৩ জানুয়ারি নবম শ্রেণি, ৪-৬ জানুয়ারি অষ্টম শ্রেণি, ৭-৯ জানুয়ারি সপ্তম শ্রেণি এবং ১০-১২ জানুয়ারি ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বই দেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
প্রধানদের চিঠি দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। অর্থাৎ সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী ১ থেকে ১২ জানুয়ারির মধ্যে মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের হাতে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বই তুলে দেবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, খুলনা জেলায় বাংলা ও ইংরেজি ভার্ষন মিলিয়ে সরকারি ও বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে ১ হাজার ৭২৭টি। এর মধ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে ১ হাজার ১৫৯টি, বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেন রয়েছে ৫৬৮টি। এছাড়াও মাদ্রাসা রয়েছে ১৭১টি। এবার থানা ও উপজেলা অফিস থেকে ১ হাজার ৭২৭টি সরকারি ও বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১০ লাখ ৯৬ হাজার ৪৬৭টি বই শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করা হবে। এর মধ্যে খুলনা সদরে ৩ লাথ ২১ হাজার ৩৩টি, ডুমুরিয়ায় ১ লাখ ২৪ হাজার ৮০টি, রূপসায় ৮৫ হাজার ৬৫০টি, কয়রায় ৯২ হাজার ৪০৬টি, তেরখাদায় ৭২ হাজার ৯২৪টি, দাকোপে ৬৪ হাজার ৫০টি, দিঘলিয়ায় ৬২ হাজার ৯৬৪টি, পাইকগাছায় ১ লাখ ২৩ হাজার ৬৯০টি, ফুলতলায় ৬৩ হাজার ৪২০টি ও বটিয়াঘাটায় ৮৬ হাজার ২৫০টি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে। তবে আগেরবারের থেকে এবার বই বিতরণে কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বই বিতরণ করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

জবি রোভার স্কাউট গ্রুপের বার্ষিক দোয়া মাহফিল সম্পন্ন

জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার স্কাউট গ্রুপের বার্ষিক দোয়া মাহফিল জুম ওয়েবিনারে সম্পন্ন হয়েছে। দোয়া …

error: Content is protected !!