১৮ বছরের নিচে ও গর্ভবতীদের টিকা লাগবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 

দেশে ১৮ বছরের নিচে ও গর্ভবতী নারীদের টিকা লাগবে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেছেন, বর্তমানে দেশে ১৮ বছরের নিচে রয়েছে প্রায় ৩৭ ভাগ মানুষ, গর্ভবর্তীসহ প্রায় কোটি মানুষ বিদেশে রয়েছেন। এই তিন শ্রেণির মানুষের টিকা না লাগায় অক্সফোর্ড ও কোভ্যাক্স ভ্যাক্সিন দিয়ে দেশের প্রায় সব মানুষেরই ভ্যাক্সিন প্রাপ্তি ঘটবে।

রবিবার সকালে মহাখালীর ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরে ২টি ভ্যাক্সিন ল্যাব পরিদর্শন শেষে এসব জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, জানুয়ারি শেষে অথবা ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময়ের মধ্যেই দেশে ভ্যাক্সিন চলে আসবে। আগামী ৬ মাসে পর্যায়ক্রমে দেশে তিন কোটি ভ্যক্সিন চলে আসবে। এই ভ্যাক্সিন মানুষের কাছে সুষ্ঠুভাবে বিতরণের জন্য সরকারের যথাযথ প্রস্তুতি নেয়া রয়েছে।

তিনি বলেন, ভ্যাক্সিন প্রদানের জন্য আমাদের প্রশিক্ষিত জনবল রয়েছে, ভ্যাক্সিন রাখার স্টোর প্রস্তুত করা হয়েছে, নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় রাখতে কোল্ডবক্স ব্যবস্থা পাকাপোক্ত করা হয়েছে। কীভাবে ভ্যাক্সিন দেওয়া হবে তার জন্য একটি গাইডলাইনও প্রস্তুত করা হয়েছে। যারা ভ্যাক্সিন প্রদানে সরকারের সমালোচনা করছে তারা সঠিক তথ্য না জেনেই কথা বলছে।

ভারতে সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে ভ্যাক্সিন নেয়ার পাশাপাশি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক কো-ভ্যাক্স ভ্যাক্সিন পাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আগামী মে-জুন মাসের দিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক দেশের মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশের জন্য কো-ভ্যাক্স ভ্যাক্সিন পাঠানো হবে। চলমান অক্সফোর্ড ভ্যাক্সিন এর পাশাপাশি কো-ভ্যাক্স ভ্যাক্সিন চলে এলে দেশের প্রায় অধিকাংশ মানুষেরই ভ্যাক্সিন প্রাপ্তি ঘটবে।

এসব কিছুর পরও মানুষকে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করা অব্যাহত রাখতে হবে বলে জানান তিনি।

পরিদর্শনকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহাবুবুর রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

নাটোরে ৫০ শয্যার করোনা ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ

করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে সংশ্লিষ্ঠ রোগীদের চিকিৎসা সক্ষমতা বাড়াতে নাটোরের সদর হাসপাতালের নির্মানাধীন ভবনে …

error: Content is protected !!