জেনিফারের সঙ্গে কোনদিন দেখাই হয়নি: ইমন সাহা

 

চলচ্চিত্র প্রযোজক মো. ইকবালের কাছে ২০ লাখ টাকা চাওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহা। এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন তিনি।

রোববার (২৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টে মো. ইকবাল এবং তার সাবেক স্ত্রী জেনিফার ফেরদৌসকে জড়িয়ে সাম্প্রতিক বিভিন্ন খবরের বিষয়ে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন ইমন।
এর আগে জোরপূর্বক বিয়ে করতে চাওয়া এবং অশ্লীল ভিডিও বার্তা ছড়ানোর হুমকি দেওয়ায় চলচ্চিত্র প্রযোজক মো. ইকবালের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তার সাবেক স্ত্রী জেনিফার ফেরদৌস। মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) মধ্যরাতে রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় হাজির হয়ে ডায়েরিটি করেন তিনি। এরপরই বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) সাবেক স্ত্রীর বিরুদ্ধে গুলশান থানায় পাল্টা সাধারণ ডায়েরি করেন প্রযোজক মো. ইকবাল।

ইকবাল তার সাধারণ ডায়েরিতে অভিযোগ করেন, সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহার মাধ্যমে তার কাছে বিশ লাখ টাকা দাবি করেন জেনিফার। এই টাকা প্রদান করলে সব মামলা তুলে নেবেন এবং সম্পূর্ণ বিষয়ে আপোস মীমাংসা করার কথা বলেন জেনিফার। শুধু তাই নয় সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহাকে বিয়ের ইচ্ছাও প্রকাশ করেছেন তার সাবেক স্ত্রী।
এদিকে চলচ্চিত্র প্রযোজক মো. ইকবাল ও তার সাবেক স্ত্রী জেনিফার ফেরদৌসের ব্যক্তিগত বিষয়ে সংগীত পরিচালক ইমন সাহাকে জড়ানোয় চটেছেন তিনি। তার দাবি, যে অভিযোগটি করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এই খবর আমার এবং আমার পরিবারের জন্য খুবই বিব্রতকর। আমার জানা মতে জেনিফার ‘আশীর্বাদ’ চলচ্চিত্রের প্রযোজক ও কাহিনীকার। যেহেতু আমি পেশাদার সংগীত পরিচালক, তাই আশীর্বাদ ছবির পরিচালক মুস্তাফিজুর রহমান মানিকের প্রস্তাবে আমি ‘আশীর্বাদ’ চলচ্চিত্রের সবকটি গান ও আবহ সংগীত পরিচালনা করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হই। আর এসব কিছুই সম্পাদন হয়েছে ভার্চুয়ালি। পেশাগত কাজের স্বার্থে এই ছবির পরিচালক, প্রযোজক, কণ্ঠ শিল্পী, গীতিকার ও অন্যান্য কলাকুশলীর সঙ্গে আমার প্রায়ই কথা বলতে হয়েছে। জেনিফারের সঙ্গেও আমার এই ছবির কাজ নিয়ে কথা হয়েছে। কিন্তু জীবনে কোনদিন তার সঙ্গে আমার সামনা সামনি দেখা হয়নি।

শুধু তাই নয় ‘আশীর্বাদ’ চলচ্চিত্রের গান ও আবহ সংগীত পরিচালনা করার চুক্তি থেকে সরেও এসেছেন ইমন সাহা। এ বিষয়ে সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহা তার ফেসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-
‘আমি সংগীত পরিচালক ইমন সাহা। গেলো কয়েকদিন ধরে আমি সামাজিক মাধ্যমে লক্ষ্য করছি – কিছু অনলাইন পোর্টাল ও সংবাদমাধ্যমে একটি অপ্রীতিকর সংবাদে আমার নামকে সংযুক্ত করা হচ্ছে। ওই সব সংবাদ অনুযায়ী চলচ্চিত্র প্রযোজক এমডি ইকবালের অভিযোগ – আমি তার সাবেক স্ত্রী জেনিফার ফেরদৌস এর কথা অনুযায়ী জনাব ইকবালের কাছে ২০ লক্ষ টাকা দাবী করেছি। আমি বলবো – এই অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এই প্রসঙ্গে আমি বলবো – গেলো চার বছর যাবত আমি আমার পরিবারসহ যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছি। যদিও কাজের প্রয়োজনে প্রায় প্রতি বছরই আমাকে বাংলাদেশে আসতে হয়। কিন্তু বর্তমানের এই COVID পরিস্থিতির কারণে আমি গেলো এক বছরের বেশি সময় ধরে দেশে আসতে পারছিনা। আমার জানা মতে জনাবা জেনিফার “আশীর্বাদ” চলচ্চিত্রের প্রযোজক ও কাহিনীকার। যেহেতু আমি পেশাদার সংগীত পরিচালক, তাই আশীর্বাদ ছবির পরিচালক মুস্তাফিজুর রহমান মানিকের প্রস্তাবে আমি “আশীর্বাদ” চলচ্চিত্রের সবকটি গান ও আবহ সংগীত পরিচালনা করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হই। আর এসব কিছুই সম্পাদন হয়েছে ভার্চুয়ালি। পেশাগত কাজের স্বার্থে এই ছবির পরিচালক, প্রযোজক, কন্ঠ শিল্পী, গীতিকার ও অন্যান্য কলাকুশলীর সঙ্গে আমার প্রায়ই কথা বলতে হয়েছে। জনাবা জেনিফারের সঙ্গেও আমার এই ছবির কাজ নিয়ে কথা হয়েছে। কিন্তু জীবনে কোনদিন তার সঙ্গে আমার সামনা সামনি দেখা হয়নি। তার সঙ্গে আমার যতবারই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সাহায্যে কথা হয়েছে, সেটা এই চলচ্চিত্রের কাজকে কেন্দ্র করেই। তাই আমি বলবো – জনাব ইকবালের এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। এই খবর আমার এবং আমার পরিবারের জন্য খুবই বিব্রতকর। আমি এই যাবতকাল গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক সাত বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হয়েছি। দেশের চলচ্চিত্রের উন্নতির স্বার্থে আমি নিজ উদ্যোগে দেশের বাইরে ভারতের চেন্নাই এবং সুদূর আমেরিকায় সংগীত নিয়ে পড়াশোনা করেছি এবং এখনও করছি। এই ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার আমার, আমার পরিবার, আমার সংগীত পরিচালনা ক্যারিয়ার এবং দেশের চলচ্চিত্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করছে। পরিশেষে আমি এই বলতে চাই – পরিচালক মুস্তাফিজুর রহমান মানিক এবং প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌস এর কাছে আমার আন্তরিক অনুরোধ “আশীর্বাদ” চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনার দায়িত্ব আমি পালন করতে অপারগতা প্রকাশ করছি। এই ছবির সংগীত পরিচালনার কাজ থেকে আমি অব্যাহতি চাইছি। আশা করছি – আমার ব্যক্তিগত, পারিবারিক এবং পেশাগত সম্মান রক্ষার্থে এই বিষয়ে আপনারা ভুল বুঝবেন না। “আশীর্বাদ” ছবি এবং ছবির সঙ্গে জড়িত সকলের জন্যে শুভ কামনা।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কণ্ঠশিল্পী আল মামুনের জন্মদিন আজ

মোঃএনামুল হক বাবু, বিনোদন প্রতিবেদন: আজ ৫ জানুয়ারী। ২০২১১৯৮২ সালের আজকের এই দিনে শেরপুর জেলার …

error: Content is protected !!