কাদেরের অপূর্ণ ইচ্ছার কথা জানালেন স্ত্রী

 

‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে তিনি ‘বদি’। ‘নক্ষত্রের রাত’ নাটকে ‘দুলাভাই’। ‘ইত্যাদি’ অনুষ্ঠানে তিনি ‘মামা’। সব মিলিয়ে একজন পরিপূর্ণ অভিনেতা। তিনি শোবিজ অঙ্গনের সবার প্রিয় আবদুল কাদের। তিনি আজ অতীত। তার অভিনীত চরিত্ররা তাকে বর্তমান ও ভবিষ্যতে টিকিয়ে রাখার দায়িত্ব বুঝে নিয়েছে।

ক্যানসার আক্রান্ত হয়ে শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল ৮টা ২০ মিনিটে রাজধানীর একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন জনপ্রিয় এ অভিনেতা। তৃতীয় জানাজা শেষে ওই দিন বিকেলে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয় তাকে।
তার মৃত্যুর পর গণমাধ্যমের কাছে অভিনেতা আবদুল কাদেরের অপূর্ণ ইচ্ছার কথা তুলে ধরেছেন তার স্ত্রী খাইরুন নেসা। তিনি বলেন, সব কাজ শেষ করে যেতে পারেননি উনি, কিছু কাজ তো বাকি আছে। নাতি-নাতনিরা তার জান ছিল, সবসময় বুকে আগলে রাখতেন, পাগল ছিলেন… শেষবারের মতো উনি দেখে যেতে চাইতেন, নাতি-নাতনি পড়াশোনা করবে; নাতনি এখন যে অভিনয় করছে, ওটা নিয়মিত করবে। তারপর সে গান শিখবে। তারপর তার ইচ্ছে ছিল, সে ডাক্তার হবে। এই কাজগুলো তিনি করে যেতে পারলেন না। নাতনিকে নিজে কেঁদে-কেঁদে অভিনয় করে দেখাতেন… এভাবে করবে…’।

প্যানক্রিয়াসের ক্যানসারে ভুগছিলেন আবদুল কাদের। ক্যানসার সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়েছিল। ১৯৫১ সালে মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার সোনারং গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন আবদুল কাদের। ছোটপর্দা, বড়পর্দা, বিজ্ঞাপন- তিন মাধ্যমেই সমান জনপ্রিয় ছিলেন তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

আসছে মহিন চৌধুরীর পরিচালনায় বিয়ে করবো

মোঃ এনামুল হক বাবু: তরুণ প্রজন্মের নির্মাতা মহিন চৌধুরী মিউজিক ভিডিও হতে শুরু করে টেলিভিশন …

error: Content is protected !!