পানাম নগর

পানাম নগর এ দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়ছে প্রতিদিন ই

মো: সানমুন আহমেদ।

বৈচিত্র ঘেরা অামাদের এই বাংলাদেশ।দেশে ঘুরার মতো অনেক পর্যটন স্থান থাকলেও অামাদের তেমন অানাগোনা নেই সেই স্থান গুলোতে।শহরের উচু উচু দালানের মাঝে সীমাবদ্ধ হয়ে যেতে হয়।অার সে দিক থেকে বিবেচনা করে অামাদের দেশে যে দর্শনার্থীগুলো রয়েছে, সে গুলোতে অামাদের যাওয়া উচিত।

সময়ের কারনেই মুলত যেতে পারি না অামরা। অার সেই সময়ের কথা চিন্তা রেখে পানাম সিটিতে ভিড় জমাচ্ছে দর্শনার্থীরা।যেতে বেশি একটা সময় লাগে না এই নগরীতে।গুলিস্তান থেকে পানাম নগরে যেতে ঘন্টা এক লাগে।

পানাম নগর বলতে বুঝি ইট পাথরের বড় বড় প্রাসাদ। যেখানে পূর্বে বসবাস ছিল ৫২ জন বনিক।এই বনিকগনের মাধ্যমে পানাম নগর গড়ে উঠে ছিল।অার তাই কালের সাক্ষি হয়ে ৫২ টি ভবন অাজ ও রয়ে অাছে।

ভবন গুলোতে রয়েছে হাজারো ইতিহাস।ঠিক তেমন একটি ভবন যার নাম দেওয়া অাছে কাশিনাথ ভবন।১৩০৫ সালে ভবন টি করা হয়েছিলো।ভবনটি দেখতে যে কোন ভবন থেকে অনেকটা ভিন্ন।

প্রাচিন এই জনপথ টিকে দেখতে প্রতিনিয়ত দেশের দর্শনার্থী থেকে শুরু করে বিদেশি পর্যটকদেরও অানাগোনা চোখে পরার মতো। প্রতিনিয়ত এখানে ঘুরতে অাসছে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শানার্থীরা।

ওয়ারী থেকে ঘুরতে অাসা এক দর্শনার্থী অাকাশ জানায়: ব্যাস্ততার জন্য সহজে ঘুরা যায় না নগরির এই প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত।তবে অনেকটা কম সময় ভালো কিছু দেখার জন্য এই নগরিতে অাসা।এই নগরীতে অাজ প্রথম এসেছি।সবার কাছে শুনতাম এই পানাম সিটি কথা।অার তাই অাজ চলে অাসলাম। বেশ ভালোই লাগছে এখানে এসে।

ছোট-সোনামনি ফিওনার কাছে পানাম নগরের কথা জানতে চাইলে সে জানায়,অামি তৃতীয় শ্রেণীতে পড়া লেখা করি।পানাম নগরের কথা অামি বইতে পড়েছি।এক সময়ের রাজধানি ছিলো এই পানাম সিটি। অাব্বু-অাম্মুকে নিয়ে ঘুরাঘুরি করছি। অনেক মজা করতাছি এখানে।

এদিকে স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী অপু জানান,পানাম নগরীতে যে কেউ এসে বিনোদন পেতে পারবে।এখানের দালানগুলো সব চাইতে বেশি অাকর্শনীয় লাগছে।পর্যটনদের অানাগোনা অনেক বেশি মনে হচ্ছে পানামে। পানাম নগরীর সম্পর্কে অনেকটা অভিয়োগ করেছে সায়েম নামের এক দর্শনার্থী। তিনি বলেন, এতিহ্যবাহী এই নগরীর ব্যাবস্থাপনার অবস্থা খুব বেহাল।এখানে অসামাজিক কর্মে কান্ডে লিপ্ত হতে দেখা যায়। তবে কাওকে কিছু না বলায় দিনের পর দিন অপকর্ম গুলো বেড়ে চলছে।এগুলো দেখার মতো কেউ নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অানসার জানায়,এক সময়ের পানাম নগর অার অাজকের পানাম নগর অনেক পার্থক্য রয়েছে।অাগের চেয়ে অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে এখানকার অবস্থা।পুরোটা ঠিক হয়ে চলছে এটা বলতে পারবো না।কারন ভালো খারাপ সব জায়গায় রয়েছে।তবে এখানে অামাদের নিরাপত্তা নতুন বাহিনী অাসার পর ব্যাপক পরিবর্তন এর ছোয়া লেগেছে।প্রায় ৮০ভাগ অপকর্ম অামরা রোধ করতে পেরেছি।

পানাম নগরীর সম্ভাবনার সম্পর্কে ইশান নামের এক দর্শনার্থী জানায়,বাইরের দেশ গুলোতে অর্থনিতির বেশিরভাগ অংশ অাসে পর্যটন শিল্প থেকে।অার সে দিক থেকে বিবেচনা করে পানাম নগর এখন পর্যটকদের জন্য বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।দূর-দূরান্ত থেকে অনেক দর্শানার্থী ভিড় জমাচ্ছে এই নগরীতে।তাই এই খাতে একটু ভালোভাবে পর্যবেক্ষন করলে অর্থনিতির দিক থেকে এগিয়ে যাবে অামাদের দেশ।

পানাম নগরীর সম্পর্কে ইনচার্জ জাহাঙ্গীর অালম জানায়,পানাম নগরের উন্নয়নের ছোয়া লেগেছে এই সরকারের হাত ধরে।দখল হয়ে যাওয়া দালান গুলোকে সরকারের অাওতায় এনে একটি দর্শনীয় শিল্প হিসেবে রুপ দিয়েছে সরকার।পানাম নগরীকে নিয়ে সরকারের অনেক প্লান রয়েছে।এখনো অনেক কাজ বাকি রয়েছে। তবে অামরা অাশাবাদি খুব কম সময়ের মাঝে দেশের পর্যটন শিল্পের গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখবে এই পানাম নগর।

 

আরো পড়ুন :

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ফ্রান্সে মহানবীকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র করার প্রতিবাদে যশোরে বিক্ষোভ

আবদুল্লাহ আল মামুন যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ আজ ২৯ অক্টোবর ২০২০ রোজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ ঘটিকায় …

3 comments

  1. Howdy! This post could not be written any better! Reading through this post reminds me of my
    old room mate! He always kept talking about this. I will
    forward this write-up to him. Fairly certain he will have
    a good read. Thank you for sharing!

  2. I know this web page provides quality dependent posts and additional stuff, is there any other web page which gives these things in quality?

  3. Genuinely when someone doesn’t understand afterward its
    up to other visitors that they will help, so here it occurs.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!