উত্তর-পশ্চিমে শীতের তীব্রতা বাড়তে পারে

 

দেশজুড়ে শীতের তীব্রতা অনেকটেই কমেছে। মৌসুমের প্রথম শৈত্যপ্রবাহের বিস্তার কমে গিয়ে দু একটি স্থানে সীমাবদ্ধ হয়েছে। রাজধানীতে শুক্রবার রাতের তাপমাত্রা এক ডিগ্রিরও বেশি বেড়ে গিয়ে শীতের তীব্রতা অনেকটাই কমেছে।

তবে শনি ও রবিবার প্রায় সারা দেশেই শীতের তীব্রতা কিছুটা বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাতের তাপমাত্রা কিছুটা কমে গিয়ে দেশের উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের কিছু এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভ করতে পারে। দুদিন পর আবার তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে।
অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস দেশ রূপান্তরকে বলেন, আগামী দুইদিন তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে। তবে অতি মাত্রায় কমার শঙ্কা আপাতত নেই। রংপুর ও রাজশাহীর কিছু এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভ করতে পারে। দুদিন পর আবার তাপমাত্রা কিছুটা বাড়বে। তখন শৈত্যপ্রবাহও দূরীভূত হতে পারে। এছাড়া আজ সারাদেশেই দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে বলে জানান তিনি।

গত শুক্রবার রংপুরের তিন জেলায় মৃদু মাত্রায় শুরু হয় এ মৌসুমের প্রথম শৈত্যপ্রবাহ।

পরের দিন শনিবার তা চট্টগ্রাম বিভাগ ছাড়া বাকি বিভাগগুলোর অন্তত ৩৭টি জেলায় বিস্তার লাভ করে। পাশাপাশি শৈত্যপ্রবাহের তীব্রতা মৃদু থেকে বেড়ে মাঝারি মাত্রায় পৌঁছে। ওইদিন কুড়িগ্রামের রাজারহাটে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয় ৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা এখন পর্যন্ত এ মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এরপর গত রবিবার থেকে তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে এবং শৈত্যপ্রবাহের বিস্তারও কমতে থাকে।
গত বৃহস্পতিবার নীলফামারীর ডিমলা ছাড়া দেশের কোথাও শৈত্যপ্রবাহ ছিল না। শুক্রবার থেকে তাপমাত্রা আবার কিছুটা কমতে শুরু করেছে। এদিন ডিমলার সঙ্গে আরও দুটি স্থানে শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভ করে। এরমধ্যে একটি পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া, আরেকটি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল। দুটি স্থানেই গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ডিমলায় শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগের দিন একই স্থানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে। সর্বোচ্চ ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে সীতাকুন্ডে। এদিন রাজধানীতে শীত অনেকটাই কমেছে। রাতের তাপমাত্রা বেড়েছে এক ডিগ্রিরও বেশি। আগের দিনের ১৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি থেকে বেড়ে গতকাল রেকর্ড হয়েছে ১৪ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দিনের তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি থেকে সামান্য কমে ছিল ২৬ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

অধিদপ্তরের আজকের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরণের কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। দেশের উত্তরপশ্চিমাংশে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

পুলিশের ১১ অতিরিক্ত ডিআইজিকে বদলি

  পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত ডিআইজি) পদমর্যাদার ১১ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্র …

error: Content is protected !!