ওয়েবসাইট সম্পর্কিত খুঁটিনাটি

মুহাম্মদ রায়হান আদনান: একটি ওয়েবসাইটের প্রয়োজনীয়তা অতিরিক্ত পুঁজির অভাবে প্রোডাক্ট কিনে, দোকান খুলে বিজনেস শুরু করতে না পারা মানুষটির জন্য এই ওয়েবসাইট একটি সম্বল হতে পারে। পাশাপাশি নিজের প্রতিভাকে ছড়িয়ে দিতে চাইলে কিংবা সবার সামনে প্রকাশ করতে চাইলেও ওয়েবসাইটের প্রয়োজনীয়তা আছে। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন লেখা, অডিও, ভিডিও ইত্যাদি প্রকাশ করে আকর্ষনীয় উপায়ে খুব সহজেই গ্রাহকের কাছে পৌঁছানো যায়। গ্রাহক তার ইচ্ছামতো সময়ে ঘরে বসেই সেবা নিতে পেরে কোম্পানির উপর আস্থা রাখতে বাধ্য হয়। পৃথিবীর বড় বড় কোম্পানিগুলি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পেরেছে।

চলুন জেনে নিন ডোমেইন এবং হোস্টিং সম্পর্কে।

ডোমেইন কি?

বর্তমানে বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য একটি ওয়েবসাইট খুব গুরুত্বপূর্ন। হোক সেটা কোনো বিজনেসের ক্ষেত্রে কিংবা কোনো সেবামূলক কর্মকান্ডের ক্ষেত্রে। একটি ওয়েবসাইট বানানোর আগে ওয়েবসাইটটির নাম নির্ধারণ করতে হয়। ওয়েবসাইটের এই নামটিকেই মূলত ডোমেইন বলা হয়। মূলত যেই নামটি সার্চ করলে আপনার ওয়েবসাইটটি ভিজিটরের সামনে প্রদর্শিত হবে সেই নামটিকেই একটি ওয়েবসাইটের ডোমেইন বলা হয়। www-facebook-com, www-google-com ইত্যাদি হলো ডোমেইনের উৎকৃষ্ট উদাহরণ। বিভিন্ন ওয়েবসাইটের জন্য বিভিন্ন এক্সটেনশনের ডোমেইন ব্যবহার করা হয়। যেমন . net, . org, . com ইত্যাদি। ডোমেইন ব্যবহার করতে হলে অবশ্যই আপনাকে কোনো ডোমেইন সেলারের কাছ থেকে তা কিনে নিতে হবে। আমাদের দেশে ৮০০/- থেকে শুরু করে প্রায় ২০০০/- দামের ডোমেইন পাওয়া যায়।

হোস্টিং কি?

হোস্টিং হলো আপনার ওয়েবসাইটে ছবি, কন্টেন্ট, ভিডিও, ফাইল ইত্যাদি রাখার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা। পাশাপাশি এই সার্ভিসটি আপনার ওয়েসাইটটিকে বছরের ২৪ ঘন্টাতেই খোলা রাখবে। ফলে ভিজিটর কখনোই আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে এসে বিপাকে পড়বে না। প্রথমদিকে আপনি চাইলে ১ জিবি হোস্টিং কিনে তা ব্যবহার করতে পারেন। শেয়ার হোস্টিং, ভিপিএস, ডেডিকেটেড সার্ভার ইত্যাদি হলো হোস্টিং এর বিভিন্ন প্রকারভেদ। আপনি আপনার চাহিদামতো হোস্টিং কিনে ব্যবহার করতে পারেন। যে কোম্পানির মাধ্যমে আপনি তাদের পিসি থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ জায়গা নিবেন সেই কোম্পানিকে সেই নির্দিষ্ট পরিমাণ জায়গার জন্য আপনাকে মূল্য দিতে হবে। বর্তমানে বাংলাদেশে অনেকেই / অনেক কোম্পানিই হোস্টিং সার্ভিস দিয়ে থাকে। অবশ্য আপনি চাইলে নিজের বা বাসার পিসিতেই আপনার ওয়েবসাইটটি রাখতে পারেন! তবে এক্ষেত্রে বছরে ২৪ ঘন্টা আপনার পিসি খোলা রাখার ব্যাপারটি একেবারেই অসম্ভব। তাই সবচেয়ে ভালো হয় হোস্টিং কিনে তারপর তা ব্যবহার করা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

আপডেটের ঝামেলা থেকে বাঁচতে উইন্ডোস টেন ব্যবহারকারীরা যা করবেন

  আবারও আপডেট হচ্ছে উইন্ডোস। তবে নতুন আপডেটের এই এক্সটেনশনের সূত্র ধরে নানা সমস্যাও রয়েছে। …

error: Content is protected !!