শ্লীলতাহানীর বিচার চাওয়ায় বাড়িঘরে সন্ত্রাসী হামলা

এস,এম,শামীম(ফুলপুর)ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ-

ময়মনসিংহ সদর উপজেলার ৪ নং পরাণগঞ্জ ইউনিয়নের বীরবওলা গ্রামে পারিবারিক ঝগড়ার জেড়ে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী এনে বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, লুটপাট ও নারীর শ্লীলতাহানীর ঘটনা ঘটেছে। এসময় সন্ত্রাসীরা টিনসেট বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে।

খবর পেয়ে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা দুটি মোটর সাইকেল ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। ভিকটিম পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, বীরবওলা গ্রামের ভ্যানচালক ওসমান আলীর স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনকে জিয়ারুল ইসলাম ঝগড়ার এক পর্যায়ে শ্লীলতাহানী করে।

 

এ নিয়ে ওসমান এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার দিলে জিয়ারুল ক্ষিপ্ত হয়ে ওসমানকে মারধর করে। এতেও ক্ষান্ত না হয়ে জিয়ারুল ইসলাম পাশ্ববর্তী তারাকান্দা উপজেলার পাগলী গ্রাম থেকে আনোয়ার হোসেন, খোরশেদ আলী, হানিফার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ভাড়া করে নিয়ে আসে। ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ওসমানের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় ঘরের বেড়াসহ ব্যাপক ভাংচুর করে। স্বামী-স্ত্রী দুইজনকে সন্ত্রাসীরা মারধর করে। সাবিনা ইয়াসমিনকে মারধরের পাশাপাশি শ্লীলতাহানী করে। সন্ত্রাসীরা ঘরের মালামালসহ ওসমানের উপার্জনের পথ ভ্যানগাড়ীটি নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। এসময় তারা দুইটি মোটর সাইকেল ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা মোটরসাইকেল দুটি উদ্ধার করে ইউপি চেয়ারম্যান সোলায়মান কবিরের জিম্মায় রাখেন। ওসমান আলী জানান, এসময় সন্ত্রাসীরা তাদের ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকার ক্ষয় ক্ষতি করে। বিচারের দাবীতে ওসমান বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় মামলা করেছেন। এসআই কুমোদ লাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এদিকে ওসমানকে উল্টো ফাঁসাতে সন্ত্রাসীরা মোটর সাইকেল উদ্ধারের জন্য থানায় মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে। এঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে। সন্ত্রাসীদের কঠিন বিচার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

রাজাপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার ৩ আসামি গ্রেপ্তার

  মোঃ নাঈম হাসান ঈমন ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন, …

error: Content is protected !!